রমজানের আগে চুয়াডাঙ্গার বাজার দাম বেড়েছে তরিতরকারিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের

 

জহির রায়হান সোহাগ: প্রতিবছর রোজার আগে শাকসবজিসহ রমজানে প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম এক লাফে দু-তিন গুন বেড়ে যাওয়া অনেকটা নিয়মে পরিণত হয়েছে। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। রমজানের আগে চুয়াডাঙ্গার বাজারে অস্বাভাবিক হারে দাম বেড়েছে চিনি, বেশন, ছোলা, বিভিন্ন ধরনর ডাল, মসলা, তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের। যদিও ব্যবসায়ীদের দাবি এর একটিরও দাম বেশি নেয়া হচ্ছে না। চালের বাজারে অস্থিরতা দেখা দিয়েছে মে মাসের শুরু থেকে।

চুয়াডাঙ্গার নিচের বাজার ঘুরে দেখা গেলো, ৩০ টাকার লবণ বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায়, ৮০ টাকার ছোলা ৮০ টাকায়, ১শ টাকার মুগ ডাল ১২০ টাকায়, আর পনের দিন আগে যে মোটা চাল বিক্রি হয়েছে ৩২-৩৫ টাকা কেজি এখন তা বিক্রি হচ্ছে ৪২ থেকে ৪৫ টাকায়। তবে সবজির দাম কিছুটা বাড়লেও রমজানের শুরুতে তাও আকাশছোঁয়া হবে বলে মনে করছেন অনেকে। এদিকে সরকার ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পণ্য ন্যায্যমূল্যে বিক্রির ঘোষণা দেয়ার এক সপ্তাহ পার হয়ে গেলেও জেলার ১১ জন টিসিবি ডিলার এখনও পণ্য বিক্রি শুরু করেননি। চুয়াডাঙ্গার পাইকারি ব্যবসায়ীদের দাবি, অন্যবারের চেয়ে এ বছর রমজানকে সামনে রেখে কোনো পণ্যের দাম বাড়ানো হয়নি। যথেষ্ট সরবরাহ থাকায় বাজার স্থিতিশীল আছে বলে জানালেন তারা। আর খুচরো বিক্রেতা আর ক্রেতারা বলছেন ভিন্ন কথা। বাজারে এসে প্রায় প্রতিটি জিনিসের দাম বেশি ধরা হচ্ছে অভিযোগ করে তারা জানালেন, রমজান মাস শুরুর আগে বাজার মনিটরিঙের দায়িত্বে থাকা কর্তাদের ঢিলেমির কারণে প্রতিবছর এই সময়টাতে তাদের দুর্ভোগে পড়তে হয়। রমজানের আগেই বাড়তি চাহিদার সুযোগ নিয়ে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী অতি মুনাফা লাভের আশায় নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য অস্থিতিশীল করার প্রয়াস চালান। এবারও অসাধু ব্যবসায়ীদের মধ্যে একই প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। অবিলম্বে চুয়াডাঙ্গার বাজার ব্যবস্থাপনার সুষ্ঠু তদারকির দাবি জানিয়েছেন এখানকার ক্রেতাসাধারণ।

জেলা মার্কেটিং অফিসার শহিদুল ইসলাম জানান, দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখতে কাজ করে যাচ্ছেন তারা। ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসকের সাথে ওই ব্যাপারে কয়েক দফা আলোচনা করা হয়েছে। এছাড়া কোনো অসাধু ব্যবসায়ী যদি কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে বাজার অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করে তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *