দর্শনা রেলইয়ার্ডে লুটেরাদের অপতৎপরতা রুখতে সাবেক মেয়র মতিয়ার রহমানের প্রতিরোধ

darsana pic (1)দর্শনা অফিস: দর্শনার ঐহিত্যবাহী রেলইয়ার্ড। বর্তমানে যেন লুটেরাদের দখলে পরিণত হয়েছে। লুটেরাদের অপতৎপরতা ঠেকাতে রীতিমতো হিমসিম খাচ্ছেন নিরাপত্তা সদস্যরা। লুটেরা ও নিরাপত্তাদের মধ্যে প্রায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটছে। উপায়ন্তর না পেয়ে নিরাপত্তাকর্মীরা গুলিবর্ষণ করেও কোনো সুফল হচ্ছে না। এরই মধ্যে রেলইয়ার্ডে লুটেরা ঠেকাতে বিশেষবাহিনী মোতায়েন করেও ফলাফল শূন্য। সম্প্রতি সময় লুটেরাদের মোকাবেলা করতে সাবেক মেয়র মতিয়ার রহমান উদ্যোগ নিয়েছেন। দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলস্টেশন সংলগ্ন দর্শনা রেলইয়ার্ড। কয়েক বছর আগেও ভারত থেকে আমদানিকৃত বিভিন্ন মালামাল ভর্তি ওয়াগন রাখা হতো প্রচুর পরিমাণে। সে সময় নিরাপত্তা বিভাগের সদস্যদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতায় হরিলুটের ঘটনা ঘটতো ইয়ার্ড এলাকায়। যার কারণেই আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলো এ রুটে আমদানি কমিয়ে দেয়। কয়েক মাস আগে রেলওয়ে বিভাগ থেকে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা নিরাপত্তা ব্যবস্থা মজবুত করার প্রতিশ্রুতিতে ফের এ রুটে আমদানি বাড়িয়েছে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলো। আমদানি বাড়ানোর সাথে সাথে বেড়েছে লুটেরাদের অপতৎপরতা। যে কারণে লুটেরাচক্র প্রতিরাতেই ইয়ার্ডে হানা দিচ্ছে। লুটপাট করছে। নিরাপত্তা বিভাগের সদস্যরা বাধা দিলেও বিপত্তি ঘটছে। প্রায় রাতেই নিরাপত্তা ও লুটেরাচক্রের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে বলেও অভিযোগ রয়েছে। দর্শনা রেলইয়ার্ডের ঐহিত্য ও সুনাম রক্ষা এবং সরকারের খাতায় রাজস্ব আদায় বৃদ্ধির লক্ষ্যেই লুটেরাদের মোকাবেলা করার উদ্যোগ নিয়েছেন সাবেক মেয়র মতিয়ার রহমান। তিনি সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের নেতাকর্মীকে সাথে নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই রাতভর অবস্থান নিচ্ছেন ইয়ার্ড এলাকায়। সহযোগিতার জন্য সাথে থাকছে স্থানীয় পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইয়ার্ড এলাকা থেকে চিহ্নিত এক চোরকে ধরা হয়। তাকে উত্তমমাধ্যম দেয়া হয়। ঘটনাস্থলে সমবেত হয় শ শ মানুষ।

এ সময় মতিয়ার রহমান বলেন, এ শহরের ঐতিহ্য তথা দর্শনাবাসীর সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখতে রেলইয়ার্ডের লুটপাট রুখতে হবে। গুটি কয়েকজন চিহ্নিত লুটেরার কারণে একদিকে যেমন দর্শনার সুনাম ক্ষুণ্ণ হচ্ছে, অন্যদিকে আমদানি কমলে সরকার হারাবে প্রচুর পরিমাণ রাজস্ব। এছাড়া লুটেরাদের মোকাবেলা না করা হলে হয়তো এক সময় আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলো এ রুটে আমদানি বন্ধ করে দিতে পারে। তাই নিজেদের স্বার্থেই লুটেরাদের মোকাবেলা করতে সকলতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। উল্লেখ্য, গত রোববার রাতেই লুটেরাদের সাথে নিরাপত্তা বিভাগের সদস্যদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কয়েকজন নিরাপত্তা সদস্যের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে।

Leave a comment

Your email address will not be published.