কালীগঞ্জে অজ্ঞানপার্টির কবলে পড়ে দু ব্যবসায়ীর ২ লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

ঝিনাইদহ অফিস: চেতনা নাশক ওষুধ খাইয়ে খুলনা ডুমুরিয়া থানার চুকনগরের দু কাপড়ব্যবসায়ীর ২ লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই করে নিয়েছে অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা। অচেতন দু কাপড়ব্যবসায়ীর একজন যশোর কেশবপুর থানার বুরুলিয়া গ্রামের ডা.আহম্মেদ আলীর ছেলে আব্দুল হালিম (৪৫)। অপরজন হচ্ছেন ডুমুরিয়া থানার চুকনগরের রাজ্জাক সর্দারের ছেলে আব্দুস ছাত্তার (৪০)। বর্তমানে তারা কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা যায়, গতকাল শুক্রবার বেলা ২টার দিকে খুলনা-কুস্টিয়াগামী রাসেল পরিবহনে করে আব্দুল হালিম ও আব্দুস ছাত্তার খুলনা থেকে কুষ্টিয়ার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। পরিবহনটি ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পৌঁছুলে বাসের সুপারভাইজার তাদেরকে অচেতন অবস্থায় দেখতে পেয়ে বাস থেকে তাদেরকে নামিয়ে দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ সময় তাদের কাছে দুটি মোবাইলসেট ও পকেটে ৫১২ টাকা পাওয়া যায়।

এদিকে অসুস্থ ব্যবসায়ীদের আত্মীয়সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সকালে খুলনার ডুমুরিয়া থানার চুকনগর বাজারের দু ব্যবসায়ী আব্দুল হালিম ও আব্দুস ছাত্তার কাপড় কেনার জন্য কুষ্টিয়ার উদ্দেশে রওয়ানা হন। তাদের কাছে ২ লক্ষাধিক টাকা ও দুটি মোবাইল ফোন ছিলো বলে তাদের স্বজনেরা জানান।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডিউটিরত ডাক্তার প্রফুল্ল কুমার জানান, সম্ভবত টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশে তাদেরকে লোরাজিপাম জাতীয় ঘুমের ওষুধ খাওয়ানো হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *