কলম্বোয় আবর্জনা ধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬

ইসলামের নেতিবাচক ভাবমূর্তির জন্য পাকিস্তান দায়ী : মালালা

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ইতিহাসের কনিষ্ঠতম নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাই বলেছেন, বিশ্বজুড়ে তার স্বদেশ পাকিস্তানের নেতিবাচক ভাবমূর্তি ও ইসলামভীতির জন্য পাকিস্তানই দায়ী। ধর্মানুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে মশাল খান নামের ২৩ বছর বয়সী সাংবাদিকতা বিভাগের এক ছাত্রকে হত্যার প্রেক্ষিতে এক ভিডিওবার্তায় মালালা এ কথা বলেন। গত বৃহস্পতিবার ফেসবুকে ধর্মানুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে মশাল খানকে প্রকাশ্য দিবালোকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। নির্দয়ভাবে পিটিয়ে তারপর গুলি করে হত্যার পরেও তার প্রাণহীন দেহের ওপর লাঠি দিয়ে পেটানো হয়। মালালা তার বার্তায় এই ঘটনার তীব্র নিন্দা প্রকাশ করে বলেন, আমরা ইসলামভীতির কথা বলি এবং বলি কিভাবে মানুষ আমাদের দেশ (পাকিস্তান) ও ধর্মের কুৎসা রটাচ্ছে। কেউ আমাদের ধর্ম ও দেশের কুৎসা রটাচ্ছে না, আমরা নিজেরাই সেটা করছি। আমরা নিজেরাই এর জন্য যথেষ্ট।

 

যুক্তরাষ্ট্রের মোয়াব বোমায় আফগানিস্তানে ৯৪ আইএস জঙ্গির প্রাণহানি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: গত বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানে নিক্ষেপ করা যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় বোমা মোয়াব বিস্ফোরণে এপর্যন্ত অন্তত ৯৪ জন ইসলামিক স্টেট (আইএস) নামধারী জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির গভর্নর। নিজেদের সামরিক শক্তি প্রদর্শনের জন্য সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলার এক সপ্তাহ পার হওয়ার মধ্যেই আফগানিস্তানের নাঙ্গারহার প্রদেশের আইএসের ঘাঁটি লক্ষ্য করে বিশ্বের সবচাইতে বড় বোমাটি ফেলে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ৩০ ফুটের বেশি লম্বা ও প্রায় ৯ হাজার ৭৯৭ কেজি ওজনের এ বোমার আঘাতে গুহা ও টানেল নেটওয়ার্ক বেষ্টিত জঙ্গিদের ওই আস্তানা পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে। এতে হতাহতের সর্বশেষ খবর নিশ্চিত করেছেন নাঙ্গারহার প্রদেশের গভর্নর ইসমাইল শিনওয়ারি।

 

ইরানে বন্যায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ইরানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে আকস্মিক বন্যায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫ জন হয়েছে। গত শনিবার দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, এখনো নিখোঁজ রয়েছেন অনেকে। প্রচণ্ড ভারীবর্ষণে ইরানের চারটি প্রদেশের বাড়িঘর ভেসে গেছে। তেহরান টাইমসের খবরে বলা হয়, প্রচণ্ড বৃষ্টিপাতে ভূমিধসের সৃষ্টি হয়। বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের আজাব শির ও আজার শাহর এলাকা। অন্যান্য ক্ষতিগ্রস্ত প্রদেশগুলো হচ্ছে পশ্চিম আজারবাইজান, যানজান ও কোর্দিস্তান প্রদেশ। নিখোঁজ ব্যক্তিদের উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

 

কলম্বোয় আবর্জনা ধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬

মাথাভাঙ্গা মনিটর: শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতে আবর্জনার পাহাড় ধসের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬ জন হয়েছে। দেশটিতে ঐতিহ্যবাহী উৎসব চলাকালে ৩শ ফুট উঁচু আবর্জনার স্তূপটি পাশের বাড়িঘরের ওপর ধসে পড়ে। কলম্বো ন্যাশনাল হাসপাতালের নারী মুখপাত্র পুষ্প সোয়সা বলেন, শুক্রবারের দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে দুটি ছেলে ও দুটি মেয়ে রয়েছে। তাদের বয়স ১১ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে। এ ঘটনায় কোলোন্নাওয়া হাসপাতালে মোট ২১ জনকে ভর্তি করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। জরুরি সেবা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, কমপক্ষে ২০ জন ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে। ধসের ঘটনা এমন সময় ঘটলো যখন শ্রীলঙ্কায় সিংহলিজ নববর্ষ আলুথ অবরুদ্ধ পালিত হচ্ছিলো। ধসের ফলে ভাগাড়ের নিকটে থাকা ৪০টি বাড়ি ধ্বংস হয়েছে। গত মাসে ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবায় বর্জ্য ধসে ১১৩ জন নিহত হয়েছিলো।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *