একুশ মানে মাথানত না করা : বাঙালির অহঙ্কার

 

দর্শনা অফিস: ‘একুশ আমার জয়, আধার করিনা ভয়’ এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে প্রতিবারের মতো এবারো মহান একুশের মেলা ও নাট্যৎসবের আয়োজন করেছে দর্শনা অনির্বাণ থিয়েটার। ৮ দিন ব্যাপী একুশে মেলার গতকাল শুক্রবার ছিলো ৬ষ্ঠ দিন। প্রতিদিনের মতো গতকাল সন্ধ্যায় সঙ্গীত পরিবেশন শেষে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা পর্ব। আলোচনা পর্বে মহান একুশের ইতিহাস তুলে ধরে প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মোফাজ্জেল হোসেন করিম বলেন, ততকালীন পাক শাসকেরা ১৯৫২ সালে বাঙালিদের প্রাণের দাবিকে উপেক্ষা করে মায়ের ভাষা কেড়ে নিতে চেয়েছিলো। বীর বাঙালী পাক শাসকের কাছে মাথানত করেনি। বন্দুকের সামনে দাড়িয়ে মায়ের ভাষা রক্ষায় ঝরিয়েছিলো বুকের তাজা রক্ত। শহীদ হয়েছিলো বরকত, জব্বার, সালাম, রফিকসহ অনেকেই। বাঙালি জাতি সেই শোককে শক্তিতে পরিণত করে পাক শাসকদের পরাজিত করেছিলো। অর্জিত হয়েছিলো মায়ের ভাষায় কথা বলার অধিকার। আমাদের গর্ব মহান একুশ আজ গোটা বিশ্বে পালিত হচ্ছে। ধ্বনিত হচ্ছে বাংলাদেশের নাম। দর্শনা পৌর মেয়র মতিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু, পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউপি চেয়ারম্যান জাকারিয়া আলম। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন অনির্বাণ থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন। এর আগে অতিথিরা মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন। এ সময় দর্শনাকে উপজেলা চাই শীর্ষক স্টলে উপজেলার দাবিতে গণসাক্ষর কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে স্বাক্ষর করেন মোফাজ্জেল করিম ও ওবায়দুর রহমান চৌধরী জিপু।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *