চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আলোচনাসভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক : যুব সমাজকে অকল্যাণকর পথ ছেড়ে কল্যাণকর পথে আসতে সাহায্য করবে

SAMSUNG CAMERA PICTURES

 

স্টাফ রিপোর্টার: ‘আলোকের এই ঝর্নাধারায় ধুইয়ে দাও’ এই প্রতিপাদ্যকে ধারন করে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী সংগঠন চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের বর্ষপূর্তি উৎসব পালিত হয়েছে। গতকাল বিকেলে পরিষদ হলরুমে গৌরবময় কর্মকালের ৩৯ বছরপূর্তি উপলক্ষে এই উৎসবের আয়োজন করা হয়।

চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের সভাপতি মোহাম্মদ তৌহিদ হোসনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা উপপরিচালক স্থানীয় সরকার বিভাগ আনজুমান আরা, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন ও চুয়াডাঙ্গা পৌরমেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম। বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুন্সি আবু সাইফ, আবৃত্তি পর্ষদের সভাপতি গোলাম কবীর মুকুল, সুরকানন সঙ্গীত একাডেমির পরিচালক আহসানুল কবীর ও সাংবাদিক জেড আলম। অতিথিবৃন্দ বলেন, ঢাকার বাইরেও যে মননশীল সাহিত্য চর্চার একটা সুদৃঢ় সুশৃঙ্খল পরিমণ্ডল সৃষ্টি করা যায়, চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদ তারই উজ্জ্বলতম উদাহরণ। বাংলাদেশের রাজধানীকেন্দ্রিক সাহিত্যচর্চার ইতিবাচক বিকেন্দ্রীকরণে এটি একটি অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত। যা এ দেশের সাহিত্যাঙ্গণের সমৃদ্ধিতে ইতিবাচক পদক্ষেপ রাখবে বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি। এখন খুব বেশি প্রয়োজন মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবাহিত অসাম্প্রদায়িক, প্রগতিশীল, গণতান্ত্রিক, নান্দনিক ও মানবিক সাহিত্যের চর্চা। যা আমাদের সকলকে বিশেষ করে যুব সমাজকে অকল্যাণকর অসুন্দরের পথ ছেড়ে কল্যাণকর সুন্দরের পথে আসতে সাহায্য করবে। পার্থিব জগতের সকল অশৈল্পিক অসুরকে বিতাড়িত করে নান্দনিক সৃজনশীলতার বিকাশ ঘটাবে। সুদীর্ঘ ৩৯ বছর ধরে চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদ নিরলসভাবে সেই কাজটিই করে যাচ্ছে। এরপর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ৩৯ বছরপূর্তি উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত বার্ষিক সাহিত্য প্রতিযোগিতা ২০১৬’র বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এ সময় ৩৯ বছরপূর্তি উৎসব উপলক্ষে প্রকাশিত স্মরণিকা পদধ্বনি অতিথিসহ উপস্থিত সকলের হাতে তুলে দেয়া হয়। শিশু কিশোর সম্পাদক মনোয়ারা খুশীর উপস্থাপনায় চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের ৩৯ বছরপূর্তি উৎসবে চুয়াডাঙ্গাসহ বিভিন্ন জেলার লেখিয়ে বন্ধু, সাংবাদিক, সুভানুধ্যায়ী, পরিষদের সদস্য ও জীবন সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *