অপশক্তি মোকাবেলায় সবাইকে সম্মিলিতভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে

চুয়াডাঙ্গা জেলা বাউল কল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাবার্ষির্কীতে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা বাউল কল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাবার্ষির্কী উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠাবাষির্কী উপলক্ষে গতকাল বুধবার বেলা ১১টায় চুয়াডাঙ্গা শহরের কবরী রোড থেকে একটি বাউল শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সেখানে এসে শেষ হয়। এরপর দুপুরে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার শৈলগাড়ী গ্রামে বাউল আস্তানায় বাউল কল্যাণ সংস্থা দু দিনব্যাপী সমাবেশের আয়োজন করেছে। চুয়াডাঙ্গা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আনজুমান আরা এ সমাবেশের উদ্বোধন করেন। তিনি বলেন, মানুষ মানুষে যখন ভালোবাসার ঘাটতি হয় তখন শুরু হয় সংকট, ঘটে নানা বিপর্যয় ও ধ্বংস। এ পরিস্থিতির উত্তরণে বাউল ভাবদর্শন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। কারণ এ দর্শনের মূল কথা মানুষের প্রতি মানুষের ভালোবাসা, বিশ্বাস, শ্রদ্ধা আর সম্প্রীতি। বর্তমানে অন্ধকারের শক্তিগুলো বাংলাদেশে তাদের অপতৎপরতা চালানোর চেষ্টা করছে। বিভিন্ন সময়ে দেশের নানা প্রান্তে বাউলদের ওপর চালাচ্ছে নির্যাতন। এটি শুধু ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর ওপর হামলা নয়, আমাদের সবার ওপর হামলা। মানব জাতির ওপর হামলা। আমাদের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের ওপর হামলা। এ অপশক্তিগুলোর মোকাবেলায় সবাইকে সম্মিলিতভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে।

অনুষ্ঠানের শুরু হতে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন অতিথিবৃন্দ। এরপর শুরু হয় আলোচনাসভা। সভাপতিত্ব করেন সংস্থার সভাপতি মহিউদ্দিন শাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান খাঁন, সংস্থার আইন উপদেষ্টা অ্যাড. মানি খন্দকার, বাউল কল্যাণ সংস্থার দাতা সদস্য তৌহিদ হোসেন প্রমুখ। বাউলশিল্পীরা লালনসঙ্গীত পরিবেশনের মধ্যদিয়ে এ বাউল সাধককে স্মরণ করেছেন। জেলার হাজারও বাউল ভক্তরা জড়ো হয়েছেন। আয়োজকরা জানান, এ সমাবেশে শিল্পের অন্য ধারার মানুষেরা বাউলদের সাথে সংহতি প্রকাশ করবে। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রানা মাসুদ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *