হরিণাকুণ্ডু’র কৃষক রশিদ হত্যায় দুজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে কৃষক আব্দুর রশিদ হত্যা মামলায় দুজনের যাবজ্জীবন কারাদ- এবং ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত। গতকাল রোববার দুপুরে ঝিনাইদহের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. গোলাম আযম এ আদেশ দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন হরিণাকুণ্ডু উপজেলার আদর্শ আন্দুলিয়া গ্রামের আইয়ুব হোসেনের ছেলে নান্নু মিয়া ও গোপিনাথপুর গ্রামের মফিজ মিয়ার ছেলে শাহীন মিয়া। সাক্ষ্য প্রমাণে দোষী না হওয়ায় দুজনকে খালাস দেয়া হয়েছে।
মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, ২০১২ সালের ১৯ মে হরিণাকুণ্ডু উপজেলার শুড়া গ্রামের জাহের আলীর ছেলে কৃষক আব্দুর রশিদকে অপহরণের পর হত্যা করা হয়। ওইদিন রাতে আন্দুলিয়া গ্রামের আমিরুল ইসলামের বাড়ির সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের চাচা আব্দুল গণি মোল্লা বাদি হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে হরিণাকুণ্ডু থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১২ সালের ২২ নভেম্বর ৪ জনের নামে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। গ্রেফতারের পর দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নান্নু মিয়া ও শাহীন মিয়া আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীরোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছিলেন।
এ মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন পাবলিক প্রসিকিউটর মো. ইসমাইল হোসেন। আসামি পক্ষে ছিলেন কাজী আনোয়ারুল ইসলাম ও আলী আকবর বেলায়েতী। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি মো. ইসমাইল হোসেন বলেন, কৃষক আব্দুর রশিদ হত্যা মামলায় দুই আসামিকে যাবজ্জীবন প্রদান করা হয়েছে। তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ১ মাসের কারাদ- দেন। এছাড়া এ মামলার অন্য দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। আসামি পক্ষে অ্যাড. কাজী আনোয়ারুল ইসলাম ও আলী আকবর বেলায়েতী মামলাটি পরিচালনা করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *