সুন্দরবন এক্সেপেস ট্রেনে কেটে হোটেল কর্মচারীর করুণ মৃত্যু

 

 

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গার মুন্সিগঞ্জ রেলস্টেশনের অদূরে ট্রেনে কাটা পড়ে হোটেল কর্মচারীর করুণ মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুরে গোসলের কথা বলে হোটেল থেকে বের হয়ে মুন্সিগঞ্জ বেনাগাড়ির মাঠে ট্রেনলাইনের ওপরে শুয়ে থাকা অবস্থায় খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপেসে কাটা পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গার জেহালা ইউনিয়নের মুন্সিগঞ্জ রেলস্টেশনের অদূরে বেনাগাড়ীর মাঠ নামক স্থানে গতকাল শনিবার দুপুর ২টার দিকে সুন্দরবন এক্সপেস ট্রেনে কেটে আলমডাঙ্গার আইলহাস ইউনিয়নের বলেশ্বরপুর গ্রামের দিনমুজুর তবারকের ছেলে হোটেল কর্মচারী রকিবুলের (১৭) মৃত্যু হয়। এলাকাবাসী জানায়, গতকাল দুপুরে ১টার দিকে মুন্সিগঞ্জ শ্রেষ্ঠ দধি ভাণ্ডারের কর্মচারী রকিবুল গোসলের কথা বলে হোটেল থেকে বের হয়। রেলস্টেশনের অদূরের পুকুরে হোটেলের অন্য কর্মচারীদের সাথে গোসল করতে না নেমে পা রেললাইন ধরে বেনাগাড়ীর মাঠের দিকে চলে যায়। এ সময় মুন্সিগঞ্জ রেলস্টেশনের অদূরের ১৪৬/৮ নং পিলারের ডাউন ট্রেনলাইনের ওপর শুয়ে থাকে। বেলা ২টার দিকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সেপেস ট্রেনে দু পা, দু হাত ও মাথা খুলি উড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। সংবাদ পেয়ে হোটেল কর্মচারীর পিতা ও তার পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। এলাকাবাসী আরো জানায়, সে প্রায়ই একই স্থানে রেললাইনের ওপর শুয়ে থাকতো বলে অনেকেই দেখেছে। গতকালই বেলা ৪টার দিকে চুয়াডাঙ্গা জিআরপি পুলিশের এএসআই খোরশেদ আলম লাশের সুরতহাল রিপোর্ট করে। গতকাল রাত ১১টার দিকে রকিবুলের গ্রাম বলেশ্বরপুরের পারিবারিক কবর স্থানে জানাজা শেষে দাফনকাজ সম্পন্ন হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *