সিরাজগঞ্জে পেট্রোলবোমায় নিহত -২ : ঢাকায় অগ্নিদগ্ধ দুজনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের তিন দফায় আহুত ১০৮ ঘণ্টার হরতাল গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় শেষ হয়েছে। নতুন করে আর হরতাল না বাড়ালেও অনির্দিষ্টকালের অবরোধ চালিয়ে যেতে নেতাকর্মী ও দেশবাসীকে আহ্বান জানিয়েছে দলটি।

অপরদিকে অবরোধ চলাকালে সড়কে একের পর এক নাশকতা অব্যাহত রয়েছে। সিরাজগঞ্জের হোড়গাঁতীতে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কে ট্রাকে অবরোধকারীদের পেট্রোলবোমা নিক্ষেপের ঘটনায় প্রাণ হারালেন দু ব্যবসায়ী। যশোরে ট্রাকে নিক্ষেপ করা পেট্রোলবোমায় দুজন দগ্ধ হয়েছে। এদিকে চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে ছোট-বড় ৮টি ট্রাক ভাঙচুর করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গায় বিএনপি গতকালও বিক্ষোভ মিছিল বের করে। তবে হরতাল পালিত হয়েছে ঢিলেঢালাভাবে। বাস-ট্রাক চলেনি। শ্যালোইঞ্জিন চালিত অবৈধযানই ছিলো সড়কের বাহন।

বুধবার এক বিবৃতিতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর চলমান গণআন্দোলনের অংশ হিসেবে লাগাতার অনির্দিষ্টকালের রাজপথ-রেলপথ-নৌপথ অবরোধ কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে চালিয়ে যাওয়ার জন্য ১৮ দলীয় জোট নেতা খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে জোটের সব পর্যায়ের নেতাকর্মী ও দেশবাসীকে উদাত্ত আহ্বান জানান। সরকারের কোনো ষড়যন্ত্র, অপপ্রচার ও অপকৌশল তীব্র গণআন্দোলনকে স্তব্ধ করা যাবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনতার যৌক্তিক দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে জনগণ শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি চালিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর।

যশোরে সার বোঝাই ট্রাকে পেট্রোলবোমা হামলায় চালক ও হেলপার অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। বুধবার রাত নয়টার দিকে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের নতুনহাট এলাকায় এ ঘটনায় ট্রাকটি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। অগ্নিদগ্ধরা হলেন- ট্রাকচালক যশোরের অভয়নগর উপজেলার বুইকারা গ্রামের আহমেদ আলী সরকারের ছেলে ডালিম (৩০) ও নওয়াপাড়া স্টেশন রোড এলাকার আনোয়ার শেখের ছেলে সোহাগ (২২)। সিরাজগঞ্জের হোড়গাঁতীতে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কে ট্রাকে অবরোধকারীদের পেট্রোলবোমা নিক্ষেপের ঘটনায় প্রাণ হারালেন দু ব্যবসায়ী। এরা হলেন- শিবগঞ্জের গণেশপুর গ্রামের আলু ব্যবসায়ী লুৎফর রহমানের ছেলে মিলন (২০) ও প্রতিবেশী আমজাদ হোসেনের ছেলে ইমরান হোসেন (১৮)। ট্রাকের চালক একই গ্রামের মৃত ওসমান আলীর ছেলে শাফায়াত আলী অগ্নিদগ্ধ হয়ে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন। এদিকে রাজধানীর শাহবাগে পেট্রোলবোমা হামলায় দগ্ধ আরও দুজন বুধবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা গেছেন। এরা হলেন- ফল ব্যবসায়ী ফরিদ মিয়া ও বীমা কর্মকর্তা শাহীনা আক্তার রূপসা।

কিশোরগঞ্জের বগামারা নামকস্থানে চট্টগ্রাম-বাহাদুরাবাদ রেলপথের যাত্রীবাহী নাসিরাবাদ এক্সপ্রেস ট্রেন গতকাল বুধবার ভোরে লাইনচ্যুত হয়েছে। এতে ট্রেনচালকসহ ১০ জন যাত্রী আহত হয়। গত মঙ্গলবার রাতে দুর্বৃত্তরা লাইনের ফিসপ্লেট খুলে রাখায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে রেলওয়ে সূত্র জানিয়েছে। গতকাল বেলা সোয়া ১১টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া ও ময়মনসিংহ থেকে দুটি উদ্ধারকারী ট্রেন এসে প্রায় দু ঘণ্টা চেষ্টার পর ট্রেনটির ইঞ্জিন উদ্ধার করে। টানা ১০ ঘণ্টা পর গতকাল দুপুরে ওই রেলপথে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, সারাদেশের ন্যায় গতকাল বুধবার জীবননগরে ১৮ দলের বিক্ষিপ্ত পিকেটিং ও ভাঙচুরের মধ্যদিয়ে অবরোধ পালিত হয়েছে। এ সময় দশটি পণ্যবাহী ট্রাক ভাঙচুর করেছে অবরোধকারীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা গেছে, গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-দর্শনা থেকে খুলনাগামী পণ্যবাহী দশটি ট্রাক সড়কের জীবননগর লক্ষ্মীপুর ব্রিজ, বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন সেবা ক্লিনিকের সম্মুখ এবং চেকপোস্টের নিকট পৌছুলে ট্রাকগুলো ভাঙচুর করে পালিয়ে যায় অবরোধকারীরা।

এদিকে বেগম খালেদা জিয়াকে গৃহবন্দীর প্রতিবাদে, ৫ জানুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচন বাতিল, নতুন তফশিল ঘোষণা, নেতা-কর্মীদের মিথ্যা মামলা বাতিল এবং নিঃস্বার্থ মুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে অবরোধের পাশাপাশি হরতালের ৩য় দিন জেলা বিএনপির উদ্যোগে বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি এম. জেনারেল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন সদর থানা বিএনপির সভাপতি অ্যাড. শামীম রেজা ডালিম, সদর পৌর বিএনপির সভাপতি শহিদুল ইসলাম রতন, সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মন্টু, সদর পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মজিবুল হক মালিক মজু, যুগ্মসম্পাদক রবিউল ইসলাম লিটন, জেলা যুবদল নেতা আশরাফ বিশ্বাস মিল্টু, মোখলেছুজ্জামান মোখলেছ, আরিফুজ্জামান পিন্টু, আতিয়ার রহমান লিটন, জেলা ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক মঞ্জুরুল জাহিদ, সুজন মালিক, জেলা ওলামা দলের সভাপতি মো. ফজলুর রহমান, হাফেজ আল জাহিদ, পৌর বিএনপির ৫ নং ওয়ার্ড সভাপতি মজনু মণ্ডল, শফিকুল কবির জুয়েল প্রমুখ।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, নির্বাচন বাতিল ও ভোটের দিনগুলোতে নেতাকর্মী নিহত হওয়ার প্রতিবাদে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা ৪৮ ঘণ্টার হরতালের তৃতীয় দিন এবং অনির্দিষ্টকালের অবরোধের কারণে গতকাল বুধবার মেহেরপুরে আন্তঃজেলা ও দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ ছিলো। তবে ছোট ছোট যানবাহন চলাচল করেছে। শহরের বেশির ভাগ দোকানপাট খোলা ছিলো। ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা রাজপথে কোনো কর্মসূচি পালন করেনি। বিপক্ষে অবস্থান নেয়নি সরকারি দল। মেহেরপুরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় ছিলো। গুরুত্বপূর্ণ স্থান ও সড়কগুলোতে টহলে ছিলেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। টানা হরতাল-অবরোধে দূরের যাত্রীরা যেমনি বিপাকে পড়েছেন তেমনি মেহেরপুরের অনেক শ্রমিক ও ব্যবসায়ী হয়ে পড়েছেন বেকার।

Leave a comment

Your email address will not be published.