মহেশপুরে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

 

স্টাফ রিপোর্টার:ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার শ্রীনাথপুর সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষীবাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।ভারতে নরেন্দ্র মোদির সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে এ প্রথম কোনো বাংলাদেশি নিহত হলো।নিহত ব্যক্তির নাম রিপন হোসেন (৩০)। বাবা রায়হান উদ্দিন। বাড়ি মহেশপুর উপজেলার সরিষাঘাটা গ্রাম।
বিজিবি এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, অত্র ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ শ্রীনাথপুর বিওপির দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় মেন পিলার ৬১ হতে ২৫০ গজ ভারতের অভ্যন্তরে নদিয়া জেলার হাসখালী থানার হালদারপাড়া নামক স্থানে বাংলাদেশি নাগরিক রিপন (২৬), ভারতের অভ্যন্তরে গরু আনার জন্য প্রবেশ করলে ১৭৩ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের ফতেপুর ক্যাম্পের টহলদল গুলি করে এবং রিপনের বগলের নিচে বাম পার্শ্বে গুলি বিদ্ধ হয়ে মারা যায় বলে জানা যায়। তখন ৩-৪ জন বাংলাদেশি নাগরিক লাশটিকে ২০০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বটতলা নামক স্থানে নিয়ে আসে।পরে লাশটি মহেশপুর থানা পুলিশের হেফাজতে নেয়া হয়।এ ব্যাপারে ব্যাটালিয়ন কমান্ডার পর্যায়ে কঠোর প্রতিবাদলিপি প্রেরণ করা হচ্ছে এবং পতাকা বৈঠকের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধিন রয়েছে।

এদিকে স্বামীর মৃত্যুর সংবাদ পাবার পর শূন্য হয়ে যায় স্ত্রী আয়েশার পৃথিবী। তার ৬ বছরের এক ছেলে ও ৮ মাসের গর্ভবর্তী সন্তান রয়েছে। তার চোখেমুখে বিষন্ন তার ছাপ। পরিবারের উপার্জনক্ষম সদস্যকে হারিয়ে রিপনের মাও পাগলপ্রায়। নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে এর বিচার দাবি করেছেন। বিকেলে নিহতের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *