বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভায় বক্তারা

0
35

সরকার জগদ্দল পাহাড়ের মতো চেপে বসেছে

 

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: সরকার জগদ্দল পাহাড়ের মতো চেপে বসেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল রোববার বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বেলা সোয়া ১১টার দিকে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারতের পর সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এ অভিযোগ করেন তিনি।

এ সময় অবিলম্বে গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের ফল বাতিল করে নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার দাবিও জানান বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব। এর আগে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করেন ও ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, সরকার জগদ্দল পাহাড়ের মতো চেপে বসেছে। স্বৈরতন্ত্রের মাধ্যমে জনগণের ওপর নির্বাচন চাপিয়ে দেয়া হয়েছে। গণতন্তকে অবমুক্ত করার জন্য ও আন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব বলে আমরা মনে করি। তিনি বলেন, গত ৫ জানুয়ারি যে নির্বাচন হয়েছে তা ভোটারবিহীন প্রহসনের নির্বাচন। অবিলম্বে এ নির্বাচনের ফল বাতিল করতে হবে। নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করতে হবে। ফখরুল বলেন, সরকারের পতন ঘটিয়ে জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা করা হবে। ভোটের অধিকার রক্ষার্থে দলের প্রতিটি নেতাকর্মীকে সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে হবে।

জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি আলোচনাসভার আয়োজন করে। জেলা বিএনপি কার্যালয়ে সহসভাপতি এম জেনারেল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- জেলা বিএনপির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ওয়াহেদুজ্জামান বুলা, দপ্তর সম্পাদক অ্যাড. আ.স.ম আব্দুর রউফ, উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাড. শামীম রেজা ডালিম, সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মন্টু, পৌর বিএনপির সভাপতি শহিদুল ইসলাম রতন, সাধারণ সম্পাদক মজিবুল হক মালিক মজু, রবিউল ইসলাম লিটন, যুবদল নেতা আশরাফ বিশ্বাস মিল্টু, তৌফিকুজ্জামান, ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক এমএ তালহা প্রমুখ। দোয়া পরিচালনা করেন ওলামাদলের নেতা মাও. জাহিদ হোসেন।

জেলা বিএনপির অর্থবিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের উদ্যোগে জন্মবার্ষিকী পালন করা হয়। কোর্টমোড়স্থ কার্যালয়ে এ আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপি একাংশের সহসভাপতি মো. আইনুর হোসেন পচা। প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় মৎস্যজীবী দলের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক বকুল। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন- বিএনপি একাংশের সহসভাপতি আরশেদ আলী কালু। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা মৎস্যজীবী দলের সাধারণ সম্পাদক কেন্দ্রীয় সদস্য ওহিদুল ইসলাম, জেলা কৃষকদলের সভাপতি হামিদুল হক নেতাজী, আলমডাঙ্গা থানা মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক মশিউর রহমান বাবু, আলমডাঙ্গা থানা তৃণমূল দলের আহ্বায়ক আতিয়ার রহমান প্রমুখ।

বিএনপি নেতা লে. কর্নেল (অব.) সৈয়দ কামরুজ্জামান বলেছেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের জন্ম না হলে বাংলার ইতিহাস অন্যভাবে রচিত হতো। তিনিই একমাত্র প্রেসিডেন্ট যিনি নিজের জন্য নয়, দেশের জন্য নিজের জীবনকে উৎসর্গ করে গেছেন। তিনি গতকাল রোববার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি আয়োজিত শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনাসভায় বক্তৃতাকালে এ কথা বলেন।

সাবেক এ সেনা কর্মকর্তা বলেন, জিয়াউর রহমানই বাংলাদেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু করেছিলেন। তিনি ৭৪ সালের বাকশালের কথা স্মরণ করিয়ে বলেন, বাংলাদেশের এক সংকটময় মুহূর্তে জিয়াউর রহমান দেশের হাল ধরেন। গঠন করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। আর আমরা তারই অনুসারী। কর্নেল কামরুজ্জামান জিয়াউর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করে রাজনীতি করার জন্য উপস্থিত নেতাকর্মীদের আহ্বান জানান। চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার আলী হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি এবিএম হাসান হাসু বলেন, জিয়াউর রহমানের রেখে যাওয়া আদর্শ বুকে ধারণ করতে না পারলে কখনো দেশপ্রেমিক হওয়া যাবে না। তাই তো দেশপ্রেমিক হতে সকলকে তার জীবনী অনুসরণ করতে হবে। বিশেষ অতিথি ছিলেন- জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আ. জব্বার সোনা, জেলা বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক রেজাউল করিম মুকুট, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসভাপতি মহাসিন আলী বিশ্বাস, যুবদল নেতা মফিজুর রহমান মনা ও সৈয়দ শরিফুল আলম বিলাশ। উপস্থিত ছিলেন- প্রভাষক নাসরিন বেগম, বিএনপি নেত্রী এলিজা বেগম, বিএনপি নেতা শহর আলী, নজরুল বিডিআর (অব.) সার্জেন্ট, আলমগীর কবির, জাহিদ টিপু, সাইদুর রহমান, রঞ্জু, বাবু, যুবদল নেতা মিলন রেজা, দিপু, রনি, রেজাউল, রতন, কল্লোল, আরশেদ, ওজল মিয়া, মিলু ও স্বপন। সভায় দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা মো. আশরাফুল আলম।

আলমডাঙ্গা ব্যরো জানিয়েছে, জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলমডাঙ্গা উপজেলা ও পৌর বিএনপির উদ্যোগে মীর মহি উদ্দিনের বাড়িতে উপজেলা বিএনপি একাংশের সভাপতি মজিবর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন- জেলা বিএনপি একাংশের সিনিয়র সহসভাপতি আলমডাঙ্গা পৌর মেয়র মীর মহিউদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ইলিয়াছ আহমেদ সিদ্দিকী। কুমারী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রফিকুল ইসলামের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন- সাবেক কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাক, শাহ আলম, কামরুজ্জামান বকুল, মহাবুল মেম্বার, রফিউদ্দিন, আব্দুল আহাদ প্রমুখ।

কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গায় ইউনিয়ন ছাত্রদলের আয়োজনে জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল রোববার বিকেল ৩টার দিকে কার্পাসডাঙ্গা কাস্টমস মোড় প্রাঙ্গণে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। ছাত্রদল নেতা জুলফিক্কার আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি নেতা সাবেক ওয়ার্ড মেম্বার মূজতবা আলী বকুল। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপি নেতা কার্পাসডাঙ্গা সাহিত্য সংসদ সভাপতি রবিউল হোসেন সুকলাল। উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন বিএনপি নেতা রহিম বাদশা, নোসকর আলী, ছাত্রদল নেতা সহিদ, ছোট কবির, কাদের, রুস্তম প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন এমবি ডিউক।

দামুড়হুদা অফিস জানিয়েছে, দামুড়হুদায় জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মদিন পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে আলোচনাসভা, কেককাটা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল রোববার বিকেল ৪টায় ব্রিজরোডে বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনায়সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি লিয়াকত আলী শাহ। প্রধান অতিথি ছিলেন- চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান হবি। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা যুবদলের যুগ্মআহ্বায়ক মোকারম হোসেন, জামায়াতে ইসলামীর থানা আমির নায়েব আলী, উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি তোফাজ্জেল হোসেন, দামুড়হুদা ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি আ. রহমান মালিথা, সাবেক সেক্রেটারি ইকরামুল হক, হাউলী ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি আ. ওয়াহেদ, নতিপোতা ইউনিয়ন বিএনপি সেক্রেটারি শহিদুল হক মোল্লা কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন বিএনপি সেক্রেটারি সামছুল হক, কুড়ালগাছি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আতিয়ার রহমান তরফদার, মদনা ইউনিয়ন বিএনপি সেক্রেটারি শফিউল্লাহ, জামায়াতে ইসলামী সদর ইউনিয়ন আমির শরিফুল আলম মিল্টন। পরিচালনা করেন জামায়াতে ইসলামীর থানা সেক্রেটারি মাও. আব্দুল গফুর।

দর্শনা অফিস জানিয়েছে, দর্শনায় শহীদ জিয়ার জন্মবার্ষিকীতে কেক কেটে পালন করেছে বিএনপির পৃথক ৪টি পক্ষ। গতকাল রোববার বিকেলে দর্শনা পৌর বিএনপির কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভার সভাপতিত্ব করেন বিএনপি নেতা ফরজ আলী। আলোচনা করেন দর্শনা পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম, শ্রমিক দল নেতা সাবু তরফদার, বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান বুলেট, ইকবাল হোসেন, আ. মোমিন, রেজাউল ইসলাম, মোমিনুল, তোতা, সরাজ, আমিনুল, কাশেম, ডাবলু, যুবদল নেতা ফারুক হোসেন, আমজাদ, মালেক, মুকুল, ছাত্রদল নেতা ব্রাইট, সোহেল, জনি প্রমুখ। একই সময় দর্শনা রেলইয়ার্ডে আনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় আজিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- বিএনপি নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা হাফিজুল ইসলাম মোল্লা, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আহম্মদ আলী, আশরাফুল, সেলিম, নুর ইসলাম, নজরুল ইসলাম, শরীফ উদ্দিন, যুবদল নেতা নাহারুল ইসলাম মাস্টার, মোতালেব, বদিয়ার, শহিদুল, হাসু, ছাত্রদল নেতা জাহান আলী, শিমুল, হাসান, হাসু, রুহিন প্রমুখ। বিকেলে দর্শনা বাসস্ট্যান্ডে বিএনপি নেতা শাওন তরফদারের পক্ষ থেকে শহীদ জিয়ার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন- বিএনপি নেতা আনিসুর রহমান, যুবদল নেতা জালাল উদ্দিন, জহিরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, হারুন অর রশিদ, আ. আলীম, শরীফ উদ্দিন, রানা, ফুল, ছাত্রদলনেতা তারিক, লিটন, সোহেব, মামুন, উজ্জল, আকাশ প্রমুখ। দর্শনা পৌর বিএনপির কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভার সভাপতিত্ব করেন পৌর বিএনপির সভাপতি হাজি খন্দকার শওকত আলী। আলোচনা করেন আমিনুল ইসলাম, বিএনপি নেতা বিষু মিয়া, নুরুল মেম্বার, রহমান মিয়া, তোফাজ্জেল হোসেন, নুরু মিস্ত্রি, আশাদুল ইসলাম, হাফিজুর রহমান, যুবদল নেতা হাসিবুল হক হাসু, মিতুল, শরিফুল, ফিরোজ, শের আলী, রিপন, আমাত আরী, ছাত্রদল নেতা, সেলিম মেহফুজ মিল্টন, বিজন, হাবিবুল্লাহ, সাইদুর, মান্নান মাষ্টার, সজিব, রাসেল, রানা, সামাউল, ফয়সাল, ইমরান, সুলতান, মামুন, মোক্তার, রেজাউল মাস্টার, সোহেল প্রমুখ।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, জীবননগর উপজেলা, পৌর ও উপজেলা বিএনপির একাংশসহ অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মবার্ষিকী পৃথক পৃথকভাবে পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে ৱ্যালি, জন্মদিনের কেক কাটা, মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। উপজেলা বিএনপির সভাপতি আক্তারুজ্জামানের সভাপতিত্বে থানা মোড়ে শাহজাহান চেয়ারম্যানের আড়ত প্রাঙ্গণে কেক কাটা, মিলাদ মাহফিল ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খান খোকন, সহসভাপতি জাফর আলী, সীমান্ত ইউনিয়ন সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী, সাধারণ সম্পাদক ওসমান গণি, বাঁকা ইউনিয়ন সভাপতি কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক শরীফ উদ্দিন, আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক সহিদুর রহমান, বিএনপি নেতা শফিউদ্দিন, নাসির ইকবাল, কামরুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন, সাইফুল ইসলাম, কামাল উদ্দিন, সামাদ, টিটো, ইমাদ উদ্দিন, আলমগীর হোসেন, আব্দুর রশিদ প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন যুবদল নেতা আবু তালেব।

পৌর বিএনপি সভাপতি সাহজাহান কবীরের সভাপতিত্বে কেক কাটা ও আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন- জেলা বিএনপির সহসভাপতি সাইদুর রহমান ধন্দু, সাধারণ সম্পাদক মাহতাব উদ্দিন, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আশরাফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সাবদার রহমান, বাঁকা ইউনিয়ন বিএনপি নেতা আব্দুর রফিক কাজল, সীমান্ত ইউনিয়ন বিএনপি নেতা বদর উদ্দিন বাদল, ওয়ার্ড বিএনপি নেতা পৌর কাউন্সিলর নবী শাহ্, কিনার উদ্দিন, আমিনুল ইসলাম, আব্দুল আলীম, মতিয়ার রহমান মতু, নজরুল ইসলাম, আলী আকবর, আহাম্মদ আলী, ইউনিয়ন বিএনপি নেতা আব্দুর রশিদ, আতিয়ার রহমান মেম্বার, রুপ মিয়া মেম্বার, সোহাগ মেম্বার, হাসান আলী, সিরাজুল ইসলাম, হাফিজুর রহমান, আয়তুল, ডালিম, টোকন, শামীম, আমিনুল, যুবদল নেতা মনির, হামিদ, সাইদুর, সুমন, বকুল, লিটন, আবুল, ছাত্রদল নেতা খোকন, ইকরামুল, মিঠু, রাসেল, জুয়েল, জাহিদ ও শ্রমিকনেতা আব্দুস সামাদ। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন ছাত্রদল নেতা জাকির আহাম্মদ শামীম।

উপজেলা বিএনপির একাংশ নোয়াব আলী গ্রুপের উদ্যোগে কেক কাটা ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। উপজেলা বিএনপির একাংশের সভাপতি পৌর মেয়র নোয়াব আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন- উপজেলা মহিলা দলের সভানেত্রী জীবননগর উপজেলা মহিল ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা আক্তার রিনি, পৌর বিএনপি সভাপতি কাউন্সিলর মশিউর রহমান, বিএনপি নেতা পৌর কাউন্সিলর হযরত আলী, কাউন্সিলর সামসুজ্জামান হান্নু, কাউন্সিলর আফতাব উদ্দিন, বিএনপি নেতা হারুন অর রশিদ, আনিছুর রহমান শিপলু, আবু বকর সিদ্দিক, তাজুল ইসলাম, মজনুর রহমান, বিশারত আলী, পৌর যুবদল সভাপতি আবুল হোসেন তোয়া, বিল্লাল হোসেন, হারেজ উদ্দিন মেম্বার, ছাত্রদল নেতা হাসান, রয়েল, ইয়াদুল, রনি, সুমন প্রমুখ।

গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৭৮তম জন্মদিন পালনে আলোচনাসভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় মেহেরপুরের গাংনী পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড বিএনপি কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ২ নং ওযার্ড বিএনপি সভাপতি সুলেরী আলভীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন মেহেরপুর জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আব্দাল হক। বিশেষ অতিথি ছিলেন- গাংনী পৌর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবলু, ২ নং ওয়ার্ড বিএনপি সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ। উপস্থিত ছিলেন- যুবদল নেতা কালাম, সরওয়ার, ইমান ও ফজলুসহ নেতৃবৃন্দ। আলোচনাসভা শেষে জিয়াউর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া মোনাজাত করা হয়।

হরিণাকুণ্ডু প্রতিনিধি জানিয়েছেন, গতকাল সকাল সাড়ে দশটায় বিএনপি কার্যালয়ে পৌর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি ইয়াকুব হোসেন মণ্ডলের সভাপতিত্বে এবং ছাত্রনেতা আব্দুস সামাদের পরিচালনায় আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন- পৌর বিএনপির সেক্রেটারি কাউন্সিলর আনিসুর রহমান এবং প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হাসান মাস্টার। এছাড়া আলোচনাসভায় বিএনপি নেতাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- মোক্তার হোসেন, মতিয়ার রহমান, ডা. আব্দুল আলীম প্রমুখ। রুহের মাগফেরাত কামনা করে মাও. আজিজুর রহমান দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here