দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুর ও মোহাম্মদপুরে সশস্ত্র ডাকাতদলের তাণ্ডব

 

অস্ত্রের মুখে লুটপাট :মহিলাসহ দুজনকে পিটিয়ে জখম

দর্শনা অফিস: দর্শনায় ছিনতাইকারী ও ডাকাতদল মাথা চারা দিয়ে উঠেছে। প্রতিরাতেই ঘটছে ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের ঘটনা। চরমভাবে বিরাজ করছে ডাকাতি ও ছিনতাই আতঙ্ক। যুবলীগ নেতার কাছ থেকে ছিনতাইয়ের পরের রাতেই দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুর ও মোহাম্মদপুরে ঘটেছে ডাকাতি ঘটনা। ডাকাতেরা একই রাতে দুবাড়িতে অস্ত্রের মুখে করেছে লুটপাট। পিটিয়ে আহত করেছে মহিলাসহ দুজনকে। গত পরশু মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে ৮/১০ জনের সশস্ত্র ডাকাতদল হানা দেয় দর্শনা পৌর শহরের মোহাম্মদপুরের গাজি রহমানের ছেলে সাজাহানের বাড়িতে। মুখোশধারী ডাকাতরা বাড়ির সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে লুট করেছে নগদ ২০ হাজার টাকা, ১৭ হাজার টাকা ভর্তি ফ্লাক্সিলোডের মোবাইল কার্ড, এক ভরি ওজনের সোনার গয়নাসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল। ডাকাতেরা গৃহকর্তৃ মনোয়ারা বেগমকে মারধর করে আহত করেছে। ডাকাতেরা আধাঘণ্টাব্যাপি লুটপাট চালিয়ে নির্বিঘ্নেপালিয়ে যায়।

রাত আড়াইটার দিকে এ দলই হানা দেয় শহরের ঈশ্বরচন্দ্রপুরের সুজাত উদ্দিনের ছেলে সাইফুজ্জামান সাপুর বাড়িতে। ডাকাতরা সাপুর বাড়ির গ্রিলের তালা কেটে ভেতরে ঢোকে। অস্ত্রের মুখে বাড়ির লোকজনকে জিম্মি করে কাপড় দিয়ে চোখ বেধে শুরু করে লুটপাট তাণ্ডব। সাপু জানিয়েছেন, ডাকাতেরা নগদ ১৪ হাজার টাকা, একভরি ওজনের সোনার গয়না, ২টি মোবাইলসহ দেড় লক্ষাধিক টাকার মালামাল। এ বাড়িতে ডাকাতেরা গৃহকর্তা সাপুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে। প্রায় পৌনে এক ঘণ্টা ডাকাতেরা তাণ্ডব চালিয়েছে নির্বিঘ্নেপালিয়ে যায়। দর্শনায় লাগাতার ছিনতাই ও ডাকাতি ঘটনায় বিরাজ করছে চরম আতঙ্ক। প্রশ্ন উঠেছে প্রসাশনের ভূমিকা নিয়ে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *