ঘুমন্ত কলেজছাত্রীসহ একই পরিবারের তিনজন অ্যাসিডদগ্ধ: সংঘর্ষে আহত ১০

 

কুষ্টিয়া ইবির গোপালপুরণ্ডল ও বিশ্বাস গ্রুপের পূর্ব বিরোধের জের : সন্ত্রস্ত গোটা গ্রাম

 

স্টাফ রিপোর্টার:কুষ্টিয়াইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার গোপলপুর গ্রামে কলেজ ছাত্রীসহ একই পরিবারেরতিনজন অ্যাসিড সন্ত্রাসের শিকার হয়েছেন। গতপরশু রাতে অ্যাসিড নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এর জের ধরেদুপক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল ৮টায় গোপালপুরের পার্শ্ববর্তীচরপাড়া বিদ্যালয় মাঠে স্থানীয় মণ্ডল ও বিশ্বাস গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়।সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসীসূত্রে জানা যায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার গোপালপুরে তিনজন অ্যাসিড দগ্ধ হওয়ার ঘটনার জের ধরেসকালে বিশ্বাস গ্রুপের লোকজন মণ্ডল গ্রুপকে দায়ী করে তাদের ওপর হামলাচালায়। এতে দু গ্রুপের সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়। সংঘর্ষেরসংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।আহত মিন্টু (২৫), জহির (৫০) আক্তার মল্লিক (৫০) ইউনুস (৫০) ও শাহেদা (৩০) কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ইসলামীবিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার ইনচার্জ মীর শরিফুল বলেন, দুগ্রুপের সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষের পর পরিস্থিতি শান্ত রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশমোতায়েন রয়েছে।কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র ডা. তাপস কুমারপাল জানান, অ্যাসিড দগ্ধ সোনিয়ার শরীরের ৪০ শতাংশ পুড়ে যাওয়ায় তাকে ঢাকামেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে ও তিতুমীরকে (১৩) রাজশাহী মেডিকেল কলেজহাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

উল্লেখ্য, কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার আব্দালপুর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামেশনিবার রাত সাড়ে ১০টায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ফুফু সালেহা, মেয়ে সোনিয়া ওছেলে তিতুমীরকে ঘুমন্ত অবস্থায় অ্যাসিড নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।পুলিশ এসিড নিক্ষেপকারী দুর্বৃত্ত সন্দেহে নায়েব আলী নামের একজনকে আটককরলেও এ ঘটনায় গতকাল শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *