কুষ্টিয়ায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মাহবুব উল আলম হানিফ

 

কুষ্টিয়াপ্রতিনিধি: বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, আল-কায়েদা নেতা জাওয়াহিরি ভিডিওবার্তার মাধ্যমে জানিয়েছেন, তারা বাংলাদেশসহ এই উপমহাদেশে তাদের ঘাটি স্থাপনের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।জাওয়াহিরির এ বক্তব্যের মধ্যদিয়ে প্রমাণ হয় যে, তারা দীর্ঘদিন ধরেই এ চেষ্টা করে আসছিলেন। ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসার পর থেকে বাংলাদেশে জঙ্গিদের জন্য চারণভূমিতে পরিণত হয়েছিলো। বাংলাদেশকে একটি জঙ্গি রাষ্ট্র বানানো হয়েছিলো। সেই দিক থেকে তালেবান,আল-কায়েদা অথবা অন্য কোনো জঙ্গি সংগঠন বাংলাদেশকে তাদের চারণভূমি হিসেবে মনে করবে এটাই স্বাভাবিক। গত পাচ বছরে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই দেশে যখন জঙ্গি নির্মূলের অভিযান চলছে ঠিক সেই সময় বিএনপি এবং জামায়াত আবার নতুন করে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির জন্য আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। আর তারা যখন সরকার পতনের জন্য আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে, আল-কায়েদা প্রধান জাওয়াহিরি নতুন করে তাদের ঘাটি স্থাপনের জন্য যে ঘোষণা দিয়েছেন এই দুটির মধ্যে যোগসূত্র রয়েছে কি-না তা খতিয়ে দেখা দরকার। আমার বিশ্বাস, বিএনপি রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকতে জঙ্গিদের সাথে যে সম্পর্ক গড়েছিলো সে সম্পর্কের ধারাবাহিকতা হিসেবেই আল-কায়েদার এ ঘোষণা।

তিনি আরো বলেন, প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত আমাদের দেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা রক্ষার জন্য সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছে। তাদের কাছ থেকেই তথ্যগুলো চলে এসেছে। তারা রাষ্ট্রীয়ভাবে গোয়েন্দা সংস্থা দিয়ে তদন্ত করে এ ধরনের তথ্য প্রকাশ করেছেন, বাংলাদেশের এ জঙ্গি সংগঠনের পেছনে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করার ক্ষেত্রে আইএসআই যে চক্রান্ত করে যাচ্ছে সেটার রুট হিসেবে ভারতের দু-একটি রাজনৈতিক দলের সাথে সম্পর্ক স্থাপন করে ব্যবহার করছে। তিনি আশাবাদ ব্যক্তকরে জানান, এদেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য এবং জঙ্গিবাদ নির্মূল করার জন্য প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *