উপজেলা নির্বাচনে মেহেরপুরে বিরোধী দলের ভোট কেন্দ্রে যেতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

 

মেহেরপুর অফিস: গতকাল বুধবার সকাল ৮টায় মেহেরপুর সদর উপজেলার ৭০টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। শুরুতেই কেন্দ্রগুলোতে ভোটাররা আসতে শুরু করেন। কয়েকটি কেন্দ্রে বিশাল লাইনও দেখা গেছে। সময় গড়ানোর সাথে সাথে ভোটারদের লাইন দীর্ঘ হয়। তবে নির্বাচনে সরকার দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন বিরোধী দলের প্রার্থীরা।

                আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী হাজি গোলাম রসুল সকালে সাংবাদিকদের জানান, সুষ্ঠ পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে। তিনি বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। তবে ১৯ দলীয় জোট প্রার্থী জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. মারুফ আহম্মেদ বিজন অভিযোগ করে বলেন পিরোজপুর ইউনিয়নের রাজনগর ও কুতুবপুর ইউনিয়নের কুলবাড়িয়া কেন্দ্রে তার পক্ষের এজেন্ট ও ভোটারদের প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। এছাড়া বন্দর গ্রামের ভোটাররা পার্শ্ববর্তী বামনপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রবেশ করলে স্থানীয় ক্যাডারবাহিনী তাদের ভোটদানে বাধা দেয় ও মারধর করে কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়।

                এর আগে সকালে চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজি গোলাম রসুল মেহেরপুর বালিকা বিদ্যালয় ও (বিএম) কলেজ কেন্দ্রে এবং অ্যাড. মারুফ আহম্মেদ বিজন সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন।

                সুষ্ঠভাবে ভোটগ্রহণের জন্য প্রশাসনের পক্ষে চারস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়। গুরুত্বপুর্ণ কেন্দ্রে ১৬ জন এবং সাধারণ কেন্দ্রে ১৫ জন করে আনসার-পুলিশ সদস্য নিয়োজিত রাখা হয়। অন্যদিকে কেন্দ্রের বাইরে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে পুলিশ, ৱ্যাব, বিজিবি ও  সেনাবাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.