দুইদিনের ছুটিতে টাইগাররা

 

স্টাফ রিপোর্টার: ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের রাজধানী বেঙ্গালুরুতে এখন কাঠফাটা রোদ। তীব্র গরমে নগরবাসীর প্রাণ ওষ্ঠাগত। গরম থেকে বাঁচতে এই বেঙ্গালুরুতেই সামার প্যালেস নির্মাণ করেছিলেন মহিশুরের শাসক টিপু সুলতান। ইংরেজদের সাথে যুদ্ধ করে শহিদ হওয়ার আগ পর্যন্ত এই প্যালেসেই বসবাস করতেন তিনি। সেই টিপু সুলতানের শহরেই বিশ্বকাপ খেলতে এসেছে টাইগাররা। তাও আবার চৈত্র মাসের তীব্র দাবদাহের সময়। এসেই গরমের রোষাণলে পড়েছে বাংলাদেশ দল। ধর্মশালায় তীব্র শীতে আটদিন কাটানোর পর এখন ভয়াবহ গরমের মধ্যে পড়েছে মাশরাফি বাহিনী। গরম থেকে বাঁচার জন্য অবশ্য টিপু সুলতানের প্রাসাদে থাকতে হচ্ছে না টাইগারদের। প্রাসাদ থেকে ৮/১০ কিলোমিটার দূরে রেসিডেন্সি রোডের অত্যাধুনিক হোটেল রিজ কার্লটনে থাকছেন মাশরাফিরা। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে কোলকাতা থেকে বেঙ্গালুরু এসেছে টাইগাররা। এয়ারপোর্ট থেকে বের হয়ে সরাসরি হোটেলে ঢুকেছে। এরপর আর বের হয়নি তারা। বিশ্রামের জন্য ক্রিকেটারদের দুদিনের ছুটি দেয়া হয়েছে। অবশ্য মুস্তাফিজ সকালের দিকে কিছুটা অনুশীলন করেছেন। ফিটনেস পরীক্ষার জন্য তাকে দিয়ে চার ওভার বোলিং করানো হয়েছ বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন জানান, আটদিনের ব্যবধানে চারটি ম্যাচ খেলতে হয়েছে বাংলাদেশ দলকে। ভারতের দুই প্রান্তের দুই শহরে ম্যাচগুলো হওয়ায় ছিলো টানা ভ্রমণের ঝক্কি। ঢাকা থেকে দিল্লী, দিল্লী থেকে ধর্মশালা, ধর্মশালা থেকে আবার দিল্লি হয়ে কোলকাতা। সবশেষে কোলকাতা থেকে দক্ষিণ ভারতের বেঙ্গালুরু শহরে উড়ে এসেছে বাংলাদেশ দল। টানা ম্যাচ আর ভ্রমণে খেলোয়াড়রা সবাই ভীষণ ক্লান্ত। তাই গতকাল শুক্র ও শনিবার দুদিনের জন্য অনুশীলন রাখা হয়নি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সোমবার নিজেদের দ্বিতীয় খেলায় মাঠে নামবে মাশরাফি বাহিনী। সে জন্য আগের দিন অনুশীলন হবে। সুজন জানান, দলের সবাই ক্লান্ত হলেও সুস্থ রয়েছেন। বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের সুপার টেন পর্বে দু’টি ম্যাচ খেলতে হবে বাংলাদেশকে। আগামী সোমবার প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলার পর ২৩ মার্চ স্বাগতিক ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ দল। এর আগে ইডেনে প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে হেরেছে টাইগাররা।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *