রফতানিকারকদের কাছ থেকে ক্ষতি পূরণ চেয়ে মুজিবনগর ইউএনওর কাছে আবেদন

 

মুজিবনগর প্রতিনিধি: ইউরোপিয়ন ইউনিয়নে রফতানির লক্ষ্যে নিরাপদ আম উৎপাদন করে ক্ষতির মুখে পড়েছেন মেহেরপুর মুজিবনগর উপজেলার বাগোয়ান গ্রামের কাজী কামাল উদ্দীন। গত বৃহস্পতিবার ৪ লাখ টাকা ক্ষতি পূরণ চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. হেমায়েত উদ্দিন বরাবর একটি আবেদন করেছেন তিনি।

তিনি অভিযোগ করেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের পরামর্শে রফতানির লক্ষ্যে তিনি এবার ৫০ হাজার আমে ব্যাগ পরিয়েছিলেন। উৎপাদন করেছেন নিরাপদ আম। কিন্তু আম সংগ্রহের সময় পার হলেও যোগাযোগ করছেন না রফতানিকারকরা। প্রতিটি ব্যাগের মূল্য ৪টাকা করে। নিরাপদ আম উৎপাদন করতে বাড়তি ৪ লাখ টাকার ব্যায় হয়েছে তার। আম সংগ্রহের সময় পার হলেও উৎপাদিত আম না নেয়ায় গাছেই নষ্ট হচ্ছে আম। ফলে লোকসানের পাল্লা ভারী হচ্ছে প্রতিনিয়তই। অনেক আম পচে নষ্ট হচ্ছে হচ্ছে।

শুধু কামাল উদ্দীন নয়, জেলায় তার মতো এবার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের পরামর্শে রফতানিক কারকদের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয় ৭০ জন আম চাষি। ৯ লাখ আমে ব্যাগ পরিয়েছিলেন তারা। এখন সেই আম কিনতে চাচ্ছেন না রফতানিকারকরা। স্থানীয় বাজারে বিক্রি করতে গেলে উৎপান খরচ উঠছে না। ফলে হতাশাই নিমজ্জিত জেলার চুক্তিবদ্ধ আম চাষিরা।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *