দেশি টুকরো

চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার আন্দোলনে পুলিশের বাধা

স্টাফ রিপোর্টার: সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা পাঁচ বছর বাড়িয়ে ৩৫ করার দাবিতে আন্দোলনে পুলিশে বাধা দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সকাল সাড়ে দশটা থেকে শাহবাগ জাদুঘরের সামনে অবস্থান নিতে শুরু করে। জমায়েত বাড়তে থাকলে বেলা ১১টা থেকে প্রায় এক ঘণ্টা তারা সেখানে অবস্থান নিয়েই দাবির পক্ষে স্লোগান দিতে থাকেন। একপর্যায়ে আন্দোলনকারীরা জাদুঘরের সামনে থেকে মিছিল নিয়ে বাংলামোটরের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করেন বলে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়। এ সময় পুলিশ মিছিলে বাধা দিলে সেই বাধা অমান্য করে সামনে এগুতে চাইলে পুলিশ আন্দোলনকারীদের ওপর লাঠিচার্জ করে। পুলিশের লাঠিপেটা থেকে বাঁচতে নারী আন্দোলনকারীরা সামনে আসলে তাদেরকেও পেটানো হয় বলে অভিযোগ আন্দোলনকারীদের। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ বেশ কয়েকজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

আমানতের টার্গেট পূরণে চাপে ব্যাংকাররা

স্টাফ রিপোর্টার: ব্যাংকগুলোতে চলছে ভয়াবহ তারল্য সঙ্কট। আর এ সঙ্কট পূরণে আমানত সংগ্রহ অভিযানে নেমেছে ব্যাংকগুলো। প্রত্যেকটা ব্যাংকই তাদের কর্মকর্তাদের নির্দিষ্ট পরিমাণ লক্ষ্যমাত্রা (টার্গেট) দিয়ে দিয়েছে। আমানত সংগ্রহের সুবিধার্থে বাড়তি সুদের স্কিমও ঘোষণা করছে ব্যাংকগুলো। সরকারি ও বিদেশি মালিকানার ব্যাংকগুলো এক্ষেত্রে কিছুটা স্বস্তিতে থাকলেও বেসরকারি খাতের ব্যাংকগুলো এমন অভিযানে নেমেছে। ব্যাংকগুলোতে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, বেসকারি একটি ব্যাংকের মধ্যমসারির একজন কর্মকর্তার গড়ে প্রতিমাসে ৫০ লাখ টাকা আমানত সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা দেয়া হয়েছে। হিসাব করলে দেখা যায়, প্রতিদিন প্রায় দুই লাখ টাকা করে আমানত সংগ্রহ করতে হবে এ সারির একজন ব্যাংকারকে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আরও বেশি লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। ফলে ব্যাপক মানসিক চাপে রয়েছেন ব্যাংকাররা। ব্যাংকের তারল্য সঙ্কট এখন এমনই দাঁড়িয়েছে যে, দৈনন্দিন প্রয়োজন মেটানোর মতো অর্থও অনেক ব্যাংকে নেই। ফলে অন্য ব্যাংকের কাছ থেকে ধার নিয়ে প্রয়োজনীয় কাজ সারতে হচ্ছে। এজন্য আন্তঃব্যাংক কলমানি সুদহার প্রায় সাড়ে চার শতাংশ হয়ে গেছে। যা ২০১৫ সালের নভেম্বরের পর সর্বোচ্চ। আমানতের সুদহার ব্যাপকহারে বেড়ে যাওয়ার কারণে এমন পরিস্থিতি হয়েছে।

 

রুয়েট হল থেকে আটক ১১‌‌জনকে মুচলেকায় ছাড়

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েটে) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষের পর বিভিন্ন হলে তল্লাশির সময় আটক ১১জনের মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে মুচলেকা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও পরিবারের সদস্যদের জিম্মায় আটক সকলকে ছেড়ে দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন মতিহার থানার ওসি শাহাদত হোসেন। ওসি বলেন, গতকাল শুক্রবার রাতে রুয়েট কর্তৃপক্ষের উপস্থিতিতে বিভিন্ন হলে তল্লাশি চালায় পুলিশ। এ সময় বেশকিছু লাঠি, লোহার রড, জিআই পাইপ উদ্ধার করা হয়। তাল্লাশির সময় পুলিশ ১১জনকে আটক করে থানা হেফাজতে নেয়। রুয়েটের সহকারী ছাত্রকল্যাণ পরিচালক সিদ্ধার্থ শংকর সাহা জানান, গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে রুয়েটের হলে হলে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। গভীররাত পর্যন্ত এ তল্লাশি চলাকালে বহিরাগতসহ ১১জনকে আটক করা হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *