দু গ্রামে রোগীকে নিয়ে ভণ্ড কবিরাজদের ঝাড়ফুঁক : চুয়াডাঙ্গা পীরপুর গ্রামে সর্পদংশনে মারা গেলেন গৃহবধূ

স্টাফ রিপোর্টার: ভণ্ড কবিরাজের ঝাড়ফুঁকের শিকার হলো আরো এক গৃহবধূ। চুয়াডাঙ্গার পীরপুর গ্রামের গৃহবধূ তিন সন্তানের জননীকে সাপে দংশনের পর হাসপাতালে না নিয়ে কবিরাজের কাছে নিয়ে গেলে তিনি মারা যান। গতকাল শুক্রবার এ ঘটনা ঘটে।

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আলুকদিয়া ইউনিয়নের পীরপুর গ্রামের শহিদুল হকের স্ত্রী ৩ সন্তানের জননী মনোয়ারা খাতুন গত বৃহস্পতিবার রাতে ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। ঘুমন্ত মনোয়ারার হাতে রাত দেড়টার দিকে দংশন করে বিষধর সাপ। তাকে দীর্ঘ সময় ধরে গ্রামের মোহা. মসলেম উদ্দিন ঝাড়ফুঁক করার ফলে মনোয়ারা নেতিয়ে পড়েন। পরে তাকে শ্রীকোল বোয়ালিয়া গ্রামে আরেক কবিরাজের কাছে নেয়া হয়। সেখানে ঝাড়ফুঁকের ফলে মুমূর্ষু অবস্থায় ভোররাতে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোররাতে গৃহবধূ মনোয়ারা মারা যান।

Leave a comment

Your email address will not be published.