ঝিনাইদহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্টের বড় ধরনের ভুল সংশোধন বন্ধ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: পাসপোর্টের ছোটখাট ভুল ব্যতিত কোনোরূপ তথ্য পরিবর্তন সম্বলিত আবেদনপত্র গ্রহন বন্ধ করা হয়েছে। ফলে পাসপোর্ট গ্রহিতাদের দুর্ভোগ ও হয়রানি ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করা হচ্ছে। বিশেষ করে গ্রামের অসচেতন মানুষ যাদের ভোটার আইডি ও জন্ম নিবন্ধনে বড় ধরনের তথ্যের গরমিল বা বানান ভুল রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে পাসপোর্ট করা দুরুহ হয়ে পড়েছে। তবে ছোটখাট ভুল ও বানান সংশোধন করে পাসপোর্ট প্রদান অব্যাহত রয়েছে বলে ঝিনাইদহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে জাননো হয়েছে। পাসপোর্ট অধিদফতরের এক অফিস আদেশে বলা হয়েছে, উল্লেখযোগ্য সংখ্যক আবেদনকারী পাসপোর্টে তাদের নাম, পিতা ও মাতার নাম অথবা প্রাক পরিচয় সম্পূর্ণ রুপে পরিবর্তন এমনকি কোনো কোনো ক্ষেত্রে বয়সও সংশোধন করে পাসপোর্ট রি-ইস্যুর জন্য আবেদন করছেন। এ ভাবে যত্রতত্র পরিবর্তনের ফলে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশি পাসপোর্টের গ্রহণযোগ্যতা নিদারুনভাবে হ্রাস পাচ্ছে। মহাপরিচালকের পক্ষে পরিচালক (পাসপোর্ট, ভিসা ও পরিদর্শন) সাইদুর রহমান গত ৭ মার্চ ৯২৫/১৩১ নং স্মারকে এ আদেশ জারী করেন। অফিস আদেশে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, তথ্য পরিবর্তন করে ভিন্ন তথ্য সম্বলিত পাসপোর্ট গ্রহণের ফলে পাসপোর্ট বাহককে ইমিগ্রেশনে প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এতে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমুর্তি ক্ষুণœ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে ইতোমেধ্য তথ্য পরিবর্তন সম্বলিত যে সব আবেদনপত্র গ্রহণ করা হয়েছে সেসব আবেদনকারীকে কলনোটিশ প্রদান করে আগের তথ্যানুযায়ী পাসপোর্ট নিতে বলা হচ্ছে। অফিস আদেশে আরও বলা হয়েছে অপারেটর কর্তৃক ভুল ও বানান ভুল ব্যতিত কোনোরুপ তথ্য পরিবর্তন সম্বলিত আবদনপত্র গ্রহণ না করতে দেশের সব আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসগুলোকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ঝিনাইদহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক বজলুর রশিদ জানান, তথ্য পরিবর্তনের ফলে বর্হিবিশ্বে বাংলাদেশি পাসপোর্টের মান কমেছে। ফলে কর্তৃপক্ষ দেশের সুনাম বৃদ্ধির জন্যই এই অফিস আদেশ জারী করেছে। তিনি আরও বলেন, বিষয়টি জনগণকে অবহিত করতে ঝিনাইদহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের পক্ষ থেকে সচেতনতা বাড়ানো হচ্ছে। তবে ছোটখাট ভুল সংশোধের অব্যাহত রয়েছে বলেও তিনি জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *