বিশ্ব টুকিটাকি : জাপানে ৫ বছরে মানুষ কমেছে ১০ লাখ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: জাপানের জনসংখ্যা কিছুতেই বাড়ছে না। সরকার বেশ কিছু কার্যকর নীতি হাতে নেয়ার পরও গত ৫ বছরে দেশটিতে ৯ লাখ ৪৭ হাজার ৩০৫ জন মানুষ কমেছে বলে দেশটির আদমশুমারির প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। আন্তঃসম্পর্ক ও যোগাযোগ ব্যবস্থা মন্ত্রণালয়ের এ শুমারিতে বর্তমান জনসংখ্যা ১২ কোটি ৭১ লাখ ১ হাজার ৪৭ জন। যা ২০১০ সালের আদমশুমারির চেয়ে শতকরা ৭ ভাগ কম। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা আদমশুমারির তথ্য জানিয়ে বলেছেন, গত বছরের ১ অক্টোবর দেশব্যাপী জরিপ চালানো হয়। এতে দেখা যায়, বর্তমানে পুরুষের সংখ্যা ৬ কোটি ১৮ লাখ ২৯ হাজার ২৩৭ জন, আর নারীর সংখ্যা ৬ কোটি ৫২ লাখ ৮০ হাজার ৮১০ জন।

দেশটির ৪৯টি প্রদেশের মধ্যে ৩৯টি প্রদেশে জনসংখ্যা হার নিম্নমুখী। তবে সবচেয়ে বেশি জনসংখ্যা কমেছে সুনামি বিধ্বস্ত ফুকুশিমা প্রদেশে। ২০১১ সালের সুনামির পর ওই অঞ্চলে মোট জনসংখ্যা প্রায় ৫ দশমিক ৬ শতাংশ কমেছে। এছাড়াও, ইয়াতে ও মিয়াগি প্রদেশেও উল্লেখযোগ্য হারে মানুষ কমেছে। তবে এবারের আদমশুমারির খবর অনুযায়ী, রাজধানী টোকিও, ওকিনাওয়া, আচিসহ আটটি প্রদেশে জনসংখ্যা বেড়েছে। জাপানে ৮০ বছরের ঊর্ধ্বে প্রায় ১ কোটি মানুষ বাস করে। এ দেশের জনসংখ্যার দুই তৃতীংয়াশই বৃদ্ধ। বয়স্ক মানুষের সংখ্যা বাড়ার কারণে দেশটিতে অর্থনৈতিক অচলাবস্থা এবং স্বাস্থ্যখাতে সরকারের ব্যয় বাড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

 

ফিলিপাইনে ৪২ জন মুসলিম বিদ্রোহী নিহত

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ফিলিপাইনে তথাকথিত ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সাথে যুক্ত ৪২ জন বিদ্রোহী দেশটির সেনাবাহিনীর হাতে প্রাণ হারিয়েছে। বাহিনীর একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, দক্ষিণাঞ্চলীয় একটি দ্বীপের পাহাড়ি এলাকায় ৫ দিন লড়াই চালিয়ে বিদ্রোহীদের আস্তানাও দখলে নেয়া হয়েছে। লানাও ডেল সুর প্রদেশে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার সশস্ত্র ইসলামপন্থীদের নেটওয়ার্ক জেম্মাহ ইসলামিয়ার আস্তানা দখলে নেয়ার সময় ৩ জন সেনা সদস্য নিহত ও আরো ১১ জন আহত হয়েছেন। ৪২ জন নিহত হওয়ার খবর জানিয়ে মেজর ফিলেমন তান সাংবাদিকদের বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে আমাদের সেনারা সন্ত্রাসবাদীদের সাথে লড়াই করে তাদের ঘাঁটি দখলে নিয়েছে। তান জানান, মোরো ইসলামিক লিবারেশন ফ্রন্টের লক্ষ্যবস্তুতে বিমান ও হেলিকপ্টার থেকেও এসময় হামলা চালানো হয়।

 

পশ্চিমবঙ্গের কারাগারে বাংলাদেশি বন্দীর মৃত্যু

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় কারাগারে গত বৃহস্পতিবার সকালে আলম মিয়া (৪০) নামে এক বাংলাদেশি বন্দীর মৃত্যু হয়েছে। কারা কর্তৃপক্ষসূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে অসুস্থ হয়ে পড়লে আলম মিয়াকে জলপাইগুড়ির সরকারি হাসপাতালে নেয়া হয়। এরপর চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ২০১০ সালের মার্চে আলম মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই বছরের ১৯ মার্চ থেকে তিনি জলপাইগুড়ির কারাগারে ছিলেন। অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে গ্রেফতার আলম মিয়ার বিচার চলছিলো জলপাইগুড়ির বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে। কারাগারের এক কর্মকর্তা গতকাল শুক্রবার সকালে বলেন, আলম মিয়া মূক ও বধির ছিলেন। তিনি তার বাড়িঘরের ঠিকানা দিতে পারেননি।

 

ইরানে পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলছে

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ইরানে পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট গ্রহণ গতকাল স্পম্ন হয়েছে। একই সাথে দেশটির বিশেষজ্ঞ পরিষদের নির্বাচনেরও ভোট নেয়া হয়। গতকাল শুক্রবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৬টায় শেষ হয়। এ নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৫ কোটি। পার্লামেন্টের আসন সংখ্যা ২৯০। মেয়াদ চার বছর। অন্যদিকে বিশেষজ্ঞ পরিষদের আসন ৮৮। ধর্মীয় নেতাদের প্রভাবশালী এই কমিটির মেয়াদ আট বছর। তারাই দেশটির পরবর্তী সর্বোচ্চ নেতা নির্বাচিত করবেন। উদারপন্থী ও রক্ষণশীল এ দু পক্ষের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে।

 

কারিনাকে গভীর রাতে অর্জুনের ফোন : রেগে আগুন সাইফ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: দিনের দীর্ঘ শিডিউলে গলদঘর্ম হয়ে রাতে বেঘোরে ঘুমাতে ভালোবাসেন সাইফ আলী খান। তবে সম্প্রতি এক রাতে ঘুমাতে পারলেন না নবাব! তার কারণ, অর্জুন কাপুরের ফোন। রাত ১২টার পর কারিনাকে ফোন করে পাতৌদির নবাবের ঘুমের বারোটা বাজালেন অর্জুন! আর এতে রেগেমেগে অগ্নিশর্মা হয়ে কারিনা-অর্জুনকে ধমক লাগালেন সাইফ। জানা গেছে, রাত তখন বেশ গভীর। বেজে উঠল কারিনার ফোন। এতো রাতে কে ফোন করছে তাকে? উৎসুক সাইফ ফোন হাতে নিয়েই দেখলেন, স্ক্রিনে ফুটে উঠেছে অর্জুনের নাম। এতে রক্ত মাথায় উঠে যায় সাইফের। ওই দিনই প্রথম নয়, এর আগে বহুবার অনেক রাতে কারিনাকে ফোন করেছেন অর্জুন। টের পেয়েও কিছুই বলেননি সাইফ, কিন্তু ওই রাতে আর চুপ করে থাকেননি তিনি। রেগে গিয়ে কারিনা ও অর্জুনের এক হাত দেখে নিয়েছেন। ফোনে অর্জুনকে বকাঝকা করে বলেছেন, রাত ১২টার পর কোনো মহিলাকে ফোন দেয়া অভদ্রতা। জরুরি কাজ হলেও রাতে ফোন না দিয়ে সকালে কথা বলা উচিত। সূত্রের খবরে প্রকাশ, সাইফ এও বলেছেন, কারিনা অর্জুনের সিনিয়র, কারিনাকে তার সেই সম্মানটা দেয়াটা উচিত। এ সময় কারিনা কি বলেছেন তা অবশ্য জানা যায়নি। জানা যায়নি অর্জুনের প্রতিক্রিয়াও।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *