চুয়াডাঙ্গার খাড়াগোদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীর বিষপানে আতœহত্যার অপচেষ্টা

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদরের খাড়াগোদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দু শিক্ষার্থী প্রেমঘটিত কারণে বিষপানে আত্মœহত্যার অপচেষ্টা চালিয়েছে। ছাত্র মাসুদ রানা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরলেও ছাত্রীকে নেয়া হয়েছে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসাপাতালে। বর্তমানে ওই ছাত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

হাসপাতালসূত্রে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি ইউনিয়নের বিত্তেরদাড়ি গ্রামের ছানারুলের ছেলে খাড়াগোদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ শ্রেণির ছাত্র মাসুদ রানা এবং একই গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী বিদ্যালয়ে অস্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতো। বিষয়টি বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের দৃষ্টিকটু হলে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গতকাল রোববার দুপুরে উভয় পক্ষের অভিভাবককে স্কুলে ডাকা হয়। একপর্যায় সাময়িকভাবে ওই দু শিক্ষার্থীকে কিছু দিনের জন্য বিদ্যালয়ে না আসার শর্তে অভিভাবকের হাতে তুলে দেয়া হয়। এ নিয়ে পরিবারের সদস্যরা তাদের সন্তানদের বকাঝকা করে। রাগে অভিমানে গতকালই সন্ধ্যার আগে মাসুদ রানা বিষপান করে। এ খবর ওই ছাত্রী জানার পর আধাঘণ্টার মাথায় সেও বিষপান করে আত্মহত্যার অপচেষ্টা চালায়। মাসুদ রানাকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করা গেলেও ছাত্রীকে চিকিৎসার জন্য নেয়া হয় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে। বর্তমানে ওই ছাত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্থানীয়ভাবে জানা গেছে, বিষয়টি ছিলো দু শিক্ষার্থীর মধ্যকার প্রেমঘটিত। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য কুতুব উদ্দীন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিদ্যালয় শিক্ষা গ্রহণের পবিত্র জায়গা অন্যকিছু না। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, ওই দু শিক্ষার্থীকে তাদের অভিভাবকের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। আত্মœহত্যার অপচেষ্টা চালানোর বিষয়টি আমার জানা নেই।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *