চালকের মুক্তি ও ওসির অপসারণ দাবিতে শ্রমিকদের ৩ ঘণ্টা সড়ক অবরোধ

 

চালক মুক্ত : মেহেরপুরের যান চলাচল স্বাভাবিক : এসপির সাথে শ্রমিক নেতাদের বৈঠক আজ

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুরের এক শ্রমিক নেতার গ্রেফতারের প্রতিবাদে ও সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অসদাচরণের অভিযোগ তুলে শ্রমিক নেতারা প্রায় ৩ ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন। ওই সময় দূরদূরান্তের যাত্রীরা অসহায় হয়ে পড়েন। পরে শ্রমিক নেতাকে জামিনে মুক্তি দিলে ও পুলিশ সুপারের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ তুলে নিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। তবে আজ শনিবার পুলিশ সুপারের সাথে আলোচনাসভা শেষে শ্রমিক নেতারা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।

জানা যায়, মেহেরপুর সদর থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে শ্রমিক নেতা বাসচালক শাহজাহান আলীকে তার বাড়ি শহরের খাপাড়াস্থ বাসা থেকে গ্রেফতার করে। ওই ঘটনায় গতকাল শুক্রবার মেহেরপুরের শ্রমিক নেতারা সদর থানায় যান। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজুল ইসলাম শ্রমিক নেতাদের সাথে অসদাচরণ করেন। এমন অভিযোগে তারা ওসির অপসারণ ও আটক শ্রমিক নেতা শাহজাহানের মুক্তির দাবি করেন। ওই দাবির প্রেক্ষিতে জেলা ট্রাক ও ট্রাঙ্কলরি শ্রমিকরা বেলা সাড়ে ১২টায় মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়ক অবরোধ করে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। ঘটনার পরপরই মেহেরপুরে মোটরশ্রমিকরা মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা প্রধান সড়কসহ জেলার সব সড়কে যান চলাচল বন্ধ রাখেন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা সড়ক অবরোধ রেখে যান চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দেন। ওই সময় পথযাত্রীরা পড়েন বিপাকে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ওয়াপদা মোড়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়। পরে মেহেরপুর চিফ জুডিসিয়াল আদালতের বিজ্ঞ বিচারক বাসচালক শাহজাহান আলীকে জামিনে মুক্তি দেন।

এদিকে মেহেরপুরের পুলিশ সুপার একেএম নাহিদুল ইসলামের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে শ্রমিকরা বিকেল সাড়ে ৩টায় অবরোধ তুলে নিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। পুলিশ সুপার আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শ্রমিক নেতাদের নিয়ে তার কার্যালয়ে আলোচনাসভায় বসবেন বলে আরো জানা যায়। জেলা ট্রাক ও ট্রাঙ্কলরি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি নিজামুল ইসলাম রকেটের অভিযোগ, আটক শাহজাহান আলী মেহেরপুর ট্রাক ও ট্রাঙ্কলরি শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক। তাকে গ্রেফতারের পর থানায় গেলে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজুল ইসলাম শ্রমিক নেতাদের সাথে অসদাচরণ করেন। এর প্রতিবাদে মেহেরপুরে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ করা হয়।

সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজুল ইসলাম জানান, ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনার একটি মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানা অনুযায়ী শাহজাহানকে গ্রেফতার করা হয়েছিলো। শ্রমিকদের অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, শ্রমিক নেতাদের সাথে অসদাচরণ করা হয়নি।

মেহেরপুর জেলা মোটরশ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি এনামূল হক জানান, সন্ধ্যার পরে জেলা ট্রাক ও ট্রাঙ্কলরি শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ে মেহেরপুর মোটরশ্রমিক ইউনিয়ন এবং জেলা ট্রাক ও ট্রাঙ্কলরি শ্রমিক ইউনিয়ন নেতাদের যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা ট্রাক ও ট্রাঙ্কলরি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি নিজামুল ইসলাম রকেট। সভায় উভয় শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সভায় সড়ক অবরোধ তুলে নেয়ার সিন্ধান্ত নেয়া হয়। তিনি আরো বলেন, সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজুল ইসলামের অপসারণ দাবিতে শ্রমিকনেতাসহ সাধারণ শ্রমিকরা অনড় রয়েছেন। শ্রমিক নেতারা শাহজাহান আলীর মুক্তি ও ওসির অপসারণ দাবি করে সড়ক অবরোধ করে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছিলো। আদালত শাহজাহান আলীকে মুক্তি দিয়েছেন। ওসির অপসারণ দাবিতে অনড় রয়েছেন শ্রমিকরা। পুলিশ সুপারের আহ্বানে আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে তারা পুলিশ সুপারের সাথে আলোচনায় বসবেন। শেষে তারা পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা দেবেন বলে তিনি আরো জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *