বিশ্ব টুকিটাকি : জঙ্গি ভেবে মন্ত্রীকে গুলি করে হত্যা

জঙ্গি ভেবে মন্ত্রীকে গুলি করে হত্যা

মাথাভাঙ্গা মনিটর: সোমালিয়ায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গুলিতে দেশটির এক মন্ত্রী (৩১) নিহত হয়েছেন। গণপূর্তমন্ত্রী আবাস আবদুল্লাহি শেখকে জঙ্গিগোষ্ঠীর সদস্য সন্দেহে গুলি করা হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুতে প্রেসিডেনশিয়াল প্যালেসের কাছে বুধবার নিজের গাড়ির ভেতর গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন আবাস আবদুল্লাহি শেখ। দেশটির রাষ্ট্রীয় বেতারের খবরে বলা হয়েছে, এ ঘটনায় দেশটির প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আবদুল্লাহি মোহামেদ ইথিওপিয়া সফর সংক্ষিপ্ত করে বৃহস্পতিবার দেশে ফিরেছেন। আবাস আবদুল্লাহি শেখ দেশটির শরণার্থী শিবিরে বেড়ে উঠেছেন। গত নভেম্বরে তিনি দেশটির কনিষ্ঠ এমপি নির্বাচিত হন। আর চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে তিনি মন্ত্রীর দায়িত্ব পান। পুলিশের মেজর নুর হোসাইন বলেন, নিরাপত্তা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা রাস্তায় গাড়ি আটক করে তল্লাশি চালাচ্ছিলেন। এ সময় ওই গাড়িটি জঙ্গি কেউ চালাচ্ছিলো সন্দেহে পুলিশ গুলি চালায়।

 

প্রেমে পড়ে আইএস জঙ্গিকে বিয়ে এফবিআই কর্মীর!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: সন্ত্রাসবাদী সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) এক জঙ্গির প্রেমে পড়ে দুঁদে গোয়েন্দাদের বোকা বানিয়ে আইএসের খাসতালুকে গিয়ে তাকে বিয়ে করারর মতো চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটিয়েছেন মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই’র এক কর্মী। ফেডারেল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই)’র দোভাষী ড্যানিয়েলা গ্রিন বিয়ে করতে গিয়েছিলেন আইএসের খাসতালুক সিরিয়ায়। পাত্র জার্মান নাগরিক ডেনিস কাসপার্ট, আইএসের এক জন কট্টর জঙ্গি।  সিরিয়ায় গিয়ে আইএসে যোগ দেয়ার পর যিনি নাম বদলে হন আবু তালহা আল-আলমানি। চেকোস্লোভাকিয়ায় জন্ম নেয়া গ্রিন এক মার্কিন নাগরিককে বিয়ে করেন। ২০১১ সালে তিনি এফবিআইতে কাজ শুরু করেন। ২০১৪ সালের জুনে তিনি এফবিআইকে বোকা বানিয়ে তুরস্ক হয়ে সিরিয়া পাড়ি জমান। আদালতের নথিপত্র অনুযায়ী তিনি সিরিয়ায় গিয়ে ২০১৪ সালের ২৭ জুন কাসপার্টকে বিয়ে করেন। তবে তিনি পরে তার ভুল বুঝতে পারেন। এর প্রমাণ পাওয়া যায় এক বান্ধবীকে করা এক ই-মেইল বার্তা থেকে।

 

মোদিকে আকুল আর্তি ভাগ্য বিড়ম্বিত বাংলাদেশি তরুণীর

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতে ৫০০ ও ১০০০ রুপির পুরোনো নোট বাতিল হয়ে গেছে সেটাও কমপক্ষে ছয় মাস হয়ে গেলো। কিন্তু তার রেশ যে এখনো কাটেনি। নোটবাতিল যে ভারতের দরিদ্র মানুষকে কিভাবে বিপদে ফেলেছে সেটা নিশ্চয়ই খোদ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কল্পনাতেও নেই। এবার যে মানুষটির কাছ থেকে নোট বাতিল সংক্রান্ত সমস্যার কথা উঠে এসেছে, তিনি একজন যৌনকর্মী। পার্শ্ববর্তী বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচার হওয়া ওই তরুণী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এই মর্মে টুইট করেছেন যে, তিনি তার সঞ্চয়ের ১০,০০০ টাকা এখনও পর্যন্ত নতুন নোটে বদলে নিতে পারেননি। মানব পাচারের শিকার হয়ে বাংলাদেশ থেকে আসা এই যৌন কর্মীর ভাগ্য বিড়ম্বনার ও দুর্দশার খবর বিভিন্ন ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে স্থান করে নিয়েছে। ভারতীয় সংবদ মাধ্যম থেকে জানা যায়, ভারতের পুণের বুধওয়ারপেথের এক নিষিদ্ধ পল্লি থেকে ‘রেসকিউ ফাউন্ডেশন’ এর সহায়তায় ২০১৫-এর ডিসেম্বরে ওই বাংলাদেশি তরুণীকে উদ্ধার করা হয়। গত ৩ মে সংস্থাটির টুইটার থেকে আপলোড করা একটি হাতে লেখা চিঠি থেকে যানা যায় যে, ওই নারী প্রধানমন্ত্রী মোদির কাছে আবেদন জানিয়েছেন, যাতে তার ওই নোটগুলো বদলে মোদি তাকে সাহায্য করেন।

 

গরুকে জাতীয় পশু ঘোষণার দাবি ভারতের

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতের রাজস্থানে গরু পাচারের মিথ্যা অভিযোগে মেওয়াট সম্প্রদায়ের পেহেলু খানকে পিটিয়ে হত্যার এক মাস পরেও বিচার না পেয়ে মেও পঞ্চায়েত গরুকে ভারতের জাতীয় পশু ঘোষণার দাবি জানিয়েছে। বুধবার তাদের এই দাবি পেশ করে বলে, এতে গরু নিয়ে রাজনীতি বন্ধ হবে এবং গরুর সঠিক সংরক্ষণ নিশ্চিত হবে। বুধবার মেওয়াট সম্প্রদায় পেহেলু খানের হত্যার সাথে অভিযুক্ত ৬ জনকে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিলের ডাক দিয়েছিলো। কিন্তু সহিংসতার অজুহাতে পুলিশ তাদের অনুমতি দেয়নি। মিছিলের অনুমতি না পেয়ে আলওয়ারের একটি মসজিদে বসে মেওয়াট সম্প্রদায়ের কয়েকশো সদস্য আলোচনা করে কিভাবে ভবিষ্যতে এমন ঘটনা এড়ানো যাবে। মেও পঞ্চায়েতের প্রধান শের মোহাম্মদ সদর বলেন, আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে চিঠি লিখব গরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা করতে। আমরা রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীর বসুন্ধরা রাজের কাছেও একই দাবিতে চিঠি লিখব। আমরা মনে করি এর মাধ্যমে শান্তি ফিরে আসবে এবং গরু বাঁচানোর নামে আর এমন হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটবে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *