হরিণাকু-ুতে তিন ছিনতাইকারীকে গণধোলাইয়ের পর পুলিশে সোপর্দ

প্রতিনিধি ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহের হরিণাকু-ুতে এবার ৩ ছিনতাইকারীকে গণধোলাইয়ের পর পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকার জনতা। হরিণাকু-ু উপজেলার হিজলী গ্রাম থেকে ৩ ছিনতাইকারীকে আটক করেছে গ্রামবাসী। পরে তাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। আটককৃতরা হচ্ছে- হরিণাকু-ু উপজেলার কাপাশহাটিয়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে স¤্রাট (১৮), আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে রুজদার আলী (১৯) ও একই উপজেলার রথখোলা গ্রামের মান্টু জোয়ার্দ্দারের ছেলে টিটুল জোয়ারদার (১৬)।
হরিণাকু-ু থানার ওসি কেএম শওকত হোসেন জানান, বুধবার রাতে মাছ বিক্রি করে বাড়ি ফিরছিলো হরিণাকু-ু উপজেলার হিজলী গ্রামের শংকর কুমার। বাড়ির সামনে পৌছুলে ওঁত পেতে থাকা ৩ ছিনতাইকারী তাকে মারধর করে ১২ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় শঙ্করের চিৎকারে গ্রামবাসী ছুটে এসে ৩ ছিনতাইকারীকে আটক করে গণধোলাই দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই জনতার হাতে আটককৃ ছিনতাইকারীদের থানায় নিয়ে আসে।
ওসি আরও জানান, এ ব্যাপারে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ভিকটিমকে হরিণাকু-ু থানায় আসতে বলা হয়েছে। তিনি আসলেই মামলা দায়ের করা হবে। এলাকাবাসীর অভিযোগ এই চক্রটি এর আগেও একাধিক চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাই কাজের সাথে জড়িত ছিলো। স্থানীয় হাজি আরশাদ আলী কলেজে চারতলা ভবন নির্মাণকাজের সময় শ্রমিকদের মারধার করে সন্ত্রাসী স¤্রাট ও তার দলবল ৭ হাজার টাকা ছিনতাই করে। পরে গ্রামে সালিস বৈঠকে ঠিকাদার রফিকুল ও রাসেলের কাছে ক্ষমা চেয়ে পার পেয়ে যায়।

Leave a comment

Your email address will not be published.