হরতালের পক্ষে বিপক্ষে মিছিল : দোকানে ইট নিক্ষেপ অটো ও লাটাহাম্বার ভাঙচুর

0
34

চুয়াডাঙ্গায় পুলিশি বাধা ডিঙিয়ে বিএনপির মিছিল : মেহেরপুরে বিএনপি ছিলো অবরুদ্ধ

 

স্টাফ রিপোর্টার: তিন দিনের হরতালের শেষ দিনে চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুর ছিলো উত্তপ্ত। ঝিনাইদহের রাজপথে গতকাল তেমন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটলেও শহরের হাটখোলায় সদর উপজেলা বিএনপির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক শামসুল ইসলামের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হামলা চালানো হয়েছে বলে। হরতালবিরোধীরা হামলা চালিয়ে নগদ সাড়ে ৩ লাখ টাকা লুটসহ ৫ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেছে বলে অভিযোগ। চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের শহীদ আবুল কাশেম সড়কে পোস্ট অফিসের অদূরবর্তী বিপণীকেন্দ্রের মিষ্টিমুখ নামের একটি দোকান ভাঙচুর করা হয়। মেহেরপুরে জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্রশিবির জোরালো পিকেটিং করেছে। মেহেরপুর বিএনপি বিক্ষোভ মিছিল বের করতে গেলে দলীয় কার্যালয়ের সামনেই পুলিশ বাধা হয়ে দাঁড়ায়। আলমডাঙ্গায় দুটি দোকান ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

6_38010

‌                চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি বালিকা বিদ্যালয়ের সামনের দলীয় কার্যালয় থেকে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে মিছিল বের করে। শহীদ হাসান চত্বরে পৌঁছুলে পুলিশ বাধা দেয়। মিছিলকারীরা বাধা পেরিয়ে কোর্টরোডে যায়। কোর্ট মোড়ের আগেই মিছিলটির সামনে আবারও পুলিশ বাধা হয়ে দাঁড়ালে তা ঘুরে দলীয় কার্যালয়ে ফেরে। এ সময় মিছিলে থাকা কিছু ব্যক্তি মিষ্টিমুখ নামের মিষ্টির দোকানটিতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। সেখানেই একটি অটো রিকশা ও একটি লাটাহাম্বার যান ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনার উত্তাপ কিছুক্ষণের মধ্যে শহর জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। যেসব দোকান আংশিক খোলা ছিলো তাও বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ মিছিল থেকে তেমন কাউকে

DSC01679

গ্রেফতার না করলেও পরে সদর থানার একদল পুলিশ ফাতেমা প্লাজার নিকট থেকে দুজনকে আটক করে থানায় নেয়। এদের মধ্যে একজন তালতলা তেঁতুলতলাপাড়ার আনোয়ার হোসেনের ছেলে অঙ্কন। অপরজন ভিজে স্কুলের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র বলে দাবি করে। তার নাম সজল। পুলিশ অবশ্য তার সম্পর্কে খোঁজখবর নিয়ে ছেড়ে দেয়ার প্রক্রিয়া করলেও শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দুজনকেই থানায় রাখা হয়। অপরদিকে গতকাল বিকেলে হরতালবিরোধী সমাবেশ শহীদ হাসান চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here