সৌদিতে আরো ১০ বাংলাদেশি হাজির মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: হজ করতে এসে আরো ১০ জনসহ গতকাল শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত সৌদিতে মৃত বাংলাদেশির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৪ জনে। গত বৃহস্পতিবার মক্কা হজ অফিসে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী হাবিবুল আওয়ালের সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শাহজাহান মিয়া।

হজ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ায় প্রধান অতিথি সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান। সভায় পরবর্তী হজ কার্যক্রমকে আরো উন্নততর করার জন্য উপস্থিত সদস্যদের কাছ থেকে বেশকিছু সুচিন্তিত মতামত নেয়া হয়। পরে তিনি সুপারিশগুলো বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশনা দেন। সর্বশেষ মারা যাওয়া বাংলাদেশিরা হলেন, কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার মিসেস মমতাজ বেগম (৫৭)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৭০৫৪৭৪০। মমতাজ বেগম গত বৃহস্পতিবার মক্কা কিং আব্দুল আজিজ হাসপাতালে মারা যান। তিনি এ বছর কেবি ইন্টারন্যাশনালের মাধ্যমে পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশে গত ৫ অক্টোবর বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে সৌদি আরব গিয়েছিলেন।

সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার মোহাম্মদ শওকত আলী গাজী (৭৪) তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৮৩৪৯৪২। শওকত আলী বৃহস্পতিবার মক্কায় মারা যান। তিনি এ বছর গ্রান্ড শিকদার এয়ার ট্রাভেলসের মাধ্যমে পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশে গত ৬ অক্টোবর সৌদিয়ার একটি ফ্লাইটে সৌদি আরব গিয়েছিলেন। কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি উপজেলার মোহাম্মদ শাহজালাল (৬৫)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ২৫১৬১৬৮। শাহজালাল গত বুধবার মক্কায় মারা গেছেন। তিনি এভারেস্ট ট্রাভেলসের মাধ্যমে হজ করতে সৌদিতে গিয়েছিলেন। ঢাকার তেজগাও এলাকার সেলিনা করিম (৬০)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৯৫৬৫৪৬২। সেলিনা করিম গত সোমবার মক্কায় মারা গেছেন। ময়মনসিংহ সদরের আবু মোতালিব সিদ্দিক (৫৪)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৫৩০১৪৩৩। তিনি সোমবার মক্কায় মারা যান। ঢাকার মিরপুর এলাকার মিসেস খোদেজা বেগম (৫৯)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৭২৬৫১৫৯। তিনিও গত সোমবার মক্কায় মারা গেছেন। শেরপুর সদর উপজেলার সোলাইমান (৭৩)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৯৩১৯৯২৮। তিনি গত রোববার মক্কা কিং আব্দুল আজিজ হাসপাতালে মারা গেছেন। চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি উপজেলার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন (৬৫)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৪৯৭৩৭৫০। তিনি গতকাল শুক্রবার মারা যান। আনোয়ার হোসেন এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশে গত ৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে সৌদি আরব গিয়েছিলেন। ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়ীয়া উপজেলার মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন তালুকদার (৬৪) তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ২৩৯৩৬৭৩। আলতাফ হোসেন শুক্রবার মক্কা কিং আব্দুল আজিজ হাসপাতালে মারা যান। টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি উপজেলার মো. ফটিক প্রামাণিক (৮১)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৪৯৪৬৬৫১। তিনি গত শনিবার মক্কায় মারা যান। আলতাফ হোসেন এবছর ব্রাইট ট্রাভেলসের মাধ্যমে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে গত ২৭ সেপ্টেম্বর সৌদি আরব গিয়েছিলেন।

চাপাইনবাবগঞ্জ  জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার শফিকুল হুদা (৬৮)। তার পাসপোর্ট নম্বর এএফ ৫৫৩০৬৩৯। তিনি গত শনিবার মক্কায় মারা যান। তিনি তাকওয়া ট্রাভেলসের মাধ্যমে হজ পালনের উদ্দেশে গত ১০ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে সৌদি আরব গিয়েছিলেন। এ বছর হজ করতে এসে ৪৪ বাংলাদেশির মধ্যে মক্কায় ২৯ জন, আরাফায় ৩ জন, মদিনায় ৯ জন ও জেদ্দায় ৩ জন (পুরুষ ৩৭, নারী ৭)। সড়ক দুর্ঘটনা, হৃদরোগ ও বার্ধক্যজনিত কারণে এসব হজ যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন হজ মিশনের একটি দায়িত্বশীল সূত্র।

হজ মিশনের মেডিকেল টিম সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ২৭ হাজার ৭৫১ জন বাংলাদেশিকে চিকিৎসাপত্র দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৯ হাজার ৬৭৯ জনকে মক্কায় ও ৮ হাজার ৭২ জনকে মদিনায় চিকিৎসাপত্র দেয়া হয়। শনিবার পর্যন্ত মক্কা, মদিনা ও জেদ্দা আইটি ডেস্ক থেকে ৩০ হাজার ৪২৭ জন বাংলাদেশি হজ যাত্রীকে তথ্যসেবা দেয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, আজ শনিবার বাংলাদেশ বিমানের মাধ্যমে প্রথম ফিরতি ফ্লাইট শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *