সেনানিবাস এলাকায় ভিক্ষাবৃত্তি-মলমূত্র ত্যাগে ২০ হাজার টাকা জরিমানা

সেনানিবাস এলাকায় ভিক্ষাবৃত্তিমলমূত্র ত্যাগে ২০ হাজার টাকা জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের যেকোনো সেনানিবাস এলাকায় রাস্তাঘাটে মলমূত্র ত্যাগ, মাতলামি, ভিক্ষাবৃত্তি অথবা জুয়া খেলার শাস্তি হিসেবে ২০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রেখে নতুন আইন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘সেনানিবাস আইন- ২০১৭’ এর খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়। একইসাথে খোলা অবস্থায় মাংস বহন করা এবং অনবৃত করে বিকলাঙ্গতা, ব্যাধি প্রদর্শনের মতো ঘটনাতেও এই শাস্তির বিধান থাকছে। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের জানান, ১৯২৪ সালের ‘ক্যান্টনমেন্টস অ্যাক্টকে’ পুনর্বিন্যস্ত করে নতুন এই আইন করা হবে।

 

যে জ্যোতিষী অন্যের ভাগ্য গণণা করে অর্থ নিতো সেই জ্যোতিষীর করুণদশা

রাজাপুর প্রতিনিধি: ঝালকাঠি সদর উপজেলার কীর্ত্তিপাশায় ঝড়ের গাছের ডাল মাথায় পড়ে কেষ্ট আচার্য (৫৫) নাকে এক জ্যোতিষীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে ইউনিয়নের মীরাকাঠি সুলতান হোসেন খান মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত কেষ্ট আচার্য কীর্ত্তিপাশা গ্রামের মৃত সুশীল আচার্যের ছেলে। তিনি পেশায় জ্যোতিষী ছিলেন। স্থানীয়রা জানান, সকালে বাড়ি থেকে পার্শ্ববর্তী মানপাশা বাজারের দিকে যাচ্ছিলো কেষ্ট আচার্য। এ সময় পথিমধ্যে ঝড় শুরু হলে চাম্বল গাছের শাখা (ডাল) ভেঙে কেষ্ট আচার্যের মাথায় পড়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। ঝালকাঠি সদর থানার এসআই মিলন কুমার জানান, নিহত কেষ্ট আচার্যকে পারিবারিক শ্মশানে সমাহিত করা হয়েছে। তার মৃত্যুর পর অনেকেই বলেছেন, যে জ্যোতিষী অন্যের ভবিষ্যত বলে টাকা নিতো, সেই জ্যোতিষী নিজেই জানতো না তার নিজের পরিণতি। হায়রে জোতিষী!

 

আগামী দিনে বিএনপি ক্ষমতায় যাবে : দুদু

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, শেখ হাসিনার সরকার ভারতকে অনেক কিছু দিয়েছে। এ সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য এখন সব কিছুই করছে। কিন্তু সময় ঘনিয়ে এসেছে ভারত-ই আওয়ামী লীগকে ছুঁড়ে ফেলে দেবে। গতকাল সোমবার বিকেলে কুমিল্লা নগরীর বাদুরতলা এলাকায় কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ও মহানগর বিএনপির তৃণমূল পর্যায়ের সকল স্তরের নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে আয়োজিত প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ তাদের ক্ষমতা চিরস্থায়ী করার যতো চেষ্টাই করুন না কেন আগামী দিনে বিএনপি ক্ষমতায় যাবে। এখন একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে হয়রানি করা হচ্ছে। মাসের পর মাস তাকে আদালতে হাজিরা দিতে হচ্ছে। বিএনপি ক্ষমতায় গেলে এর সমুচিত জবাব দেয়া হবে।

 

যশোরে যুদ্ধাপরাধ মামলার আসামি আমজেদ গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার: যুদ্ধাপরাধের মামলায় যশোরের বাঘারপাড়ার আমজেদ মোল্লা গ্রেফতার হয়েছেন। সোমবার রাত ৮টার দিকে তার নিজ বাড়ি থেকে পুলিশ গ্রেফতার করে। আমজেদ মোল্লা যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার প্রেমচারা গ্রামের মৃত সোবহান মোল্লার ছেলে। বাঘারপাড়া থানার ওসি শেখ মতিয়ার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মাগুরার শালিখা উপজেলার সীমাখালী গ্রামের (যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার পার্শ্ববর্তী গ্রাম) রজব আলী বিশ্বাসের ছেলে মামলার বাদী খোকন বিশ্বাস জানান, ১৯৭১ সালের ১৫ আগস্ট মাগুরার সীমাখালী বাজারের পাশে আমবাগানের দাঁড়িয়ে ছিলেন আসামি আমজেদ রাজাকারের নেতৃত্বে ১০-১২ জন। তারা মামলার বাদীর পিতা রজব আলী বিশ্বাসকে অপহরণ করে যশোরের বাঘারপাড়া থানার চাঁদপুর গ্রামে ইফাজ মোল্লার আমবাগানে নিয়ে যান। সেখানে বাদীর পিতাকে গামছা দিয়ে চোখ ও দড়ি দিয়ে হাত বেঁধে বাগানের দক্ষিণপাশে নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *