সুন্দর এই পৃথিবীটা আর দেখতে পারবেন না ঝিনাইদহের ইবির ছাত্র নাজমুল হক

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: দরিদ্র ঘরে জন্মেছিলো বলে বাড়িতে পড়ালেখা হয়নি ঝিনাইদহের মেধাবী ছাত্র নাজমুল হকের। বাড়ির পরিবর্তে তার স্থান হয়েছিলো চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর শহরের এতিমখানায়। ২০১৩ সালে এতিমখানা থেকেই দাখিল পাস করার পর বদরগঞ্জ বাকি বিল্লাহ (র.) কামিল মাদরাসায় ভর্তি হন তিনি। সেখানেও লিল্লাহ বোর্ডিং ও কখনো লজিং থেকে আলিম পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে পাস করেন নাজমুল। আর্থিক অভাব আর নানা অনটনে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার বাসনা ছিটকে যাওয়া মুহূর্তে ঝিনাইদহ শহরের এক ব্যাংক কর্মকর্তার সহায়তায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দেন নাজমুল। মেধাবী আর ইচ্ছা শক্তির বদৌলতে নাজমুল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পেয়ে যান।

২০১৫ সালে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতিক বিভাগে। জীবনের প্রতিটি বাঁকে বাঁকে লড়াই করা নাজমুল এখন রোগের কাছে পরাস্থ। তার ডান চোখের রোটিনা ও জেলি নষ্ট হয়ে গেছে। জরুরিভাবে চিকিৎসা করতে না পারলে তার দুই চোখ অন্ধ হয়ে যেতে পারে। এজন্য প্রয়োজন পাঁচ লাখ টাকা।

ঝিনাইদহ শহরের হামদহ সাধুপতিরাম স্কুলের পাশে একটি জামে মসজিদে পনেরশ টাকা বেতনে মোয়াজ্জিন হিসেবে কর্মরত আছেন ইবি ছাত্র নাজমুল। তিন বেলা এলাকার মুসল্লিদের বাড়িতে খেয়ে জীবন কাটান তিনি। তার বাবা চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার নবদুর্গাপুর গ্রামের ইছাহাক আলী মণ্ডল কৃষিকাজ করেন। বাবাও বৃদ্ধ ও রোগগ্রস্ত। পরিবারের পক্ষে এতো টাকা যোগাড় করা সম্ভব নয়। নাজমুল হক জানান, প্রথমে তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যায়ের চিকিৎসক ডা. সিরাজুল ইসলামকে তার চোখের সমস্যার কথা জানালে তিনি আমাকে ঢাকার ইস্পাহানি ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতালে পাঠান। সেখানে ডা. মেরি গ্রেস তার চোখ পরীক্ষা করে জানান, ডান চোখের জেলি ও রেটিনা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ডা. মেরি গ্রেস আরো পরামর্শ দেন দ্রুত উন্নত চিকিৎসা না করলে দুই চোখই চষ্ট হয়ে যাবে। ডাক্তারদের এই কথা শুনে হতাশায় পড়েন নাজমুল হক। এতো টাকা তিনি কোথায় পাবেন এ নিয়ে সর্বক্ষণ চিন্তায় থাকেন তিনি।

ইবি ছাত্র নাজমুলের বন্ধু সাজ্জাদুল হক রকি জানান, চিকিৎসকরা তাকে ভারতের চেন্নাইয়ের শংকর নেত্রালয় হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য যেতে পরামর্শ দিয়েছেন। সে জন্য আমরা বন্ধু মহলসহ বিভিন্ন স্থানে টাকা কালেকশন করছি। কিন্তু তেমন সাড়া পাচ্ছি না।

রকি জানান, এ পর্যন্ত যে টাকা পাওয়া গেছে তাতে নাজমুলের চিকিৎসা করা কষ্টসাধ্য। নাজমুলকে কোন সুহৃদয়বান ব্যক্তিবর্গ বা প্রতিষ্ঠান চিকিৎসা সহায়তা পাঠাতে চাইলে ইসলামী ব্যাংক, ঝিনাইদহ শাখা, ছাত্র অ্যাকাউন্ট নং এসএমএসএ-১৫৩৩ এবং ০১৯৪৭-১৭৩৬৮৫ নং বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে অনুরোধ করা হলো।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *