সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়ার ছবি তুলে বিএসএফ’র হাতে দু ছাত্র আটক

মুজিবনগর প্রতিনিধি: বগুড়ার শেরপুর উপজেলা থেকে মেহেরপুরের ঐতিহাসিক মুজিবনগরে শিক্ষা সফরে গিয়ে বিপাকে পড়েন সফরকারী শাহানগর ইসলামিয়া মাদরাসার ৮৪ শিক্ষার্থী ও ৬ শিক্ষক। গতকাল বৃহস্পতিবার শিক্ষা সফরে আসা ওই দলের ২ ছাত্র মুজিবনগর সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়ার ধারে ছবি তুলতে গেলে বিপাকে পড়েন ওই সফরকারী দল।
স্থানীয় বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার রুস্তম আলী ও শিক্ষা সফরকারী দলের সহকারী শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ জানান, গত বুধবার রাতে মুজিবনগর সফরের উদ্দেশে রওনা দেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ ৯০ জনের ওই শিক্ষা সফরকারী দল। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে মুজিবনগরে পৌঁছান তারা। সকালের নাস্তা শেষে বেলা ১০টার দিকে সফরকারী দলের সদস্য দুই ছাত্র শেরপুর উপজেলার বড়পুকুরিয়া গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে আবুল হাশেম (১৫) ও একই উপজেলার বেওড়াপাড়া এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে শাহ সুলতান (১৬) পার্শ্ববর্তী ভারত সীমান্তের ১০৫নং মেন পিলারের নিকট কাঁটাতারের বেড়ার ছবি তুলতে যায়। এ সময় ভারতের নদীয়া জেলার চাপড়া থানার হৃদয়পুর বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের দু জনকে আটক করে। খবর পেয়ে মুজিবনগর বিজিবি পতাকা বৈঠকের আমন্ত্রণ জানায়। বেলা ১১টার দিকে সীমান্তের ১০৫নং পিলারের নিকট পতাকা বৈঠক বসে। এতে ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেন হৃদয়পুর বিএসএফ ক্যাম্পের এসি নরেন্দ্রসহ ৫ সদস্যের বিএসএফ দল এবং বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন মুজিবনগর বিজিবি কোম্পানি ক্যাম্প কমান্ডার রুস্তম আলীসহ ৫ সদস্যের বিজিবি দল। আধা ঘন্টা পতাকা বৈঠক শেষে মাদরাসা ছাত্র আবুল হাশেম ও সুলতান হোসেনকে বিজিবি’র কাছে ফেরত দেয় বিএসএফ। পরে বিজিবি তাদের দু জনকে মুজিবনগর থানা পুলিশে দেয়। পুলিশ হেফাজতে ওই দু ছাত্র মুজিবনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী কামাল হোসেন জানান, বিএসএফ তাদের মারধর করায় তারা আতঙ্কিত ছিলো। চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *