শ্বশুর মারলো পুত্রবধূকে : পুত্রের লাঠিঘাতে জখম হলেন পিতা

 

স্টাফ রিপোর্টার: শ্বশুর মেরেছে পুত্রবধূকে, পুত্র মেরেছে তার পিতাকে। শ্বশুরের পিটুনিতে আহত পুত্রবধূ সোহাগীকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে এবং পুত্রের লাঠির আঘাতে আহত পিতা ওহিদুল ইসলামকে আলমডাঙ্গার একটি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে আলমডাঙ্গার পল্লি তিওরবিলা বাগানপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে সংশ্লিষ্টরা বলেছে, লিটনের মা মারা গেলে তার পিতা আবারও বিয়ে করে। বর্তমান স্ত্রী নিয়ে তিনি বাড়িতেই পৃথক হয়ে বসবাস করেন। ছেলে লিটন তার স্ত্রী নিয়ে একই বাড়িতে থাকেন। পিতা ও পুত্রের পরিবার একই বিদ্যুত ব্যবহার করে। বিদ্যুতের বিলের অর্ধেক পিতার নিকট থেকে নিয়ে বিল পরিশোধের কথা বলে লিটন কাজে যায়। পুত্রবধূ সোহাগী তার শ্বশুরের নিকট টাকা চাইতে গেলে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এক পর্যায়ে শ্বশুর ক্ষুব্ধ হয়ে লাঠি দিয়ে পুত্রবধূকে মারধর করে। আহত হয়ে ঘরে পড়ে থাকে। ছেলে বাড়ি ফিরে স্ত্রীর দশা দেখে ঘটনা শুনে ক্ষুব্ধ হয়ে ছুটে যান পিতার দিকে। তিনি পিতাকে লাঠি দিয়ে আঘাত করেন। পরে আহত পিতাকে উদ্ধার করে আলমডাঙ্গার একটি ক্লিনিকে ও পুত্রবধূ সোহাগীকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *