লোকনাথপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

0
39

 

দামুড়হুদা অফিস: দামুড়হুদা উপজেলার লোকনাথপুর সহ-শিক্ষা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ৮৫ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। টাকা ফেরত চেয়ে নোটিশও দেয়া হয়েছে। নিয়ম বহির্ভূতভাবে নিয়োগ সংক্রান্ত কোনো কাগজ না থাকলেও সহকারী প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি এবং আইন বহির্ভূতভাবে বেতন-ভাতা উত্তোলন করেছেন।

লোকনাথপুর সহ-শিক্ষা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক কাওছার আলী নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে অবৈধভাবে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন। নিয়োগ সংক্রান্ত তার নেই কোনো বৈধ কাগজপত্র। ক্ষমতার অপব্যবহার করে সহকারী প্রধান শিক্ষক থেকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালনকালে তিনি সরকারের কোষাগার থেকে ১২ হাজার টাকার স্কেল গ্রহণ করেছেন এবং একই সাথে সরকারি বিধি না মেনে বেআইনীভাবে দুবার টাইমস্কেল গ্রহণ করেছেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে গত ১১ মে বিদ্যালয়ে এক কার্যনির্বাহী সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই কার্যনির্বাহী সভায় নিরীক্ষণ কমিটি প্রতিবেদন দাখিল করে বলেন, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক কাওছার আলী বিদ্যালয়ের ৮৫ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছেন, যা প্রমাণিত। আর সে কারণে কার্যনির্বাহী কমিটি তাকে সাময়িকভাবে চাকরি থেকে অব্যাহতি প্রদান করেন। কর্তৃপক্ষ তার কাছে আত্মসাৎকৃত অর্থ ফেরত প্রদানের জন্য জোর তাগিদ প্রদান করছে। বিদ্যালয়ের সভাপতি জিল্লুর রহমান খোকন জানান, প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য হলে বিধি মোতাবেক কাওছার আলী প্রায় ৯ মাস ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি নিয়ম না মেনে বিদ্যালয়ের ৮ লাখ টাকা লেনদেন করেছেন। কোনো টাকা ব্যাংকে জমা দেননি। হিসাব নিরীক্ষা কমিটি তদন্ত করে ৮৫ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে প্রতিবেদন দাখিল করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here