লেখাপড়া না জানা ওল্টু কিশোরকালেই পা বাড়ায় অন্ধকারে

র‌্যাব’র এনকাউন্টারে নিহত ত্রাসের মৃতদেহ ময়নাতদন্ত শেষে নিজগ্রাম তিয়রবিলায় দাফন

সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গার পল্লি খাসকররা এলাকার ত্রাস ওল্টু ম-লের মৃতদেহ ময়নাতদন্ত শেষে নিজগ্রাম তিয়রবিলা কবরস্থানে দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে লাশ নিজেদের বাড়ি নেয়া হয়। দাফন সম্পন্ন করা হয় বাদ জোহর। মৃতদেহ দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় জমায়। এ সময় লেখাপড়া না জানা ওল্টুর ভয়ঙ্কর অস্ত্রধারী হয়ে ওঠার নেপথ্য নিয়ে আনেকেই আলোচনায় মেতে ওঠে। ছোটবেলা থেকেই অস্ত্রধারী সে। অস্ত্রশস্ত্রসহ ফরিদপুরের কামারখালীতে ধরা পড়ার পর যে ১৫ বছর হাজতে ছিলো, সেই সময়টাই ওর মা-বাবাসহ ভাই-বোনদের একটু স্বস্তিতে কেটেছে।
জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার তিয়রবিলার গাজিপাড়ার ঝড়– ম-লের ছেলে ওল্টু ম-ল কোনোদিন স্কুলে পা দেয়নি। অক্ষরজ্ঞান না থাকলেও হাবভাবে ছিলো বুদ্ধিজীবী। চরমপন্থি। স্থানীয়দের অনেকেই এ মন্তব্য করে বলেছে, ১৫ বছর বয়স থেকে অপরাধ জগতে পা বাড়ায় ওল্টু। চরমপন্থিদলে ভিড়ে সে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। গ্রামের সাধারণ মানুষের সাথে কোনোদিন বিরোধ হয়নি। ইউপির সাবেক চেয়ারম্যানের লুৎফর রহমানের সাথে বিরোধে জড়িয়ে সে ঝিনাইদহর ডাকবাংলা গোবরাপাড়ার সাগর ওরফে ছানার হাত ধরে অন্ধকার জগতে পা বাড়ায়। ১৯৯৬ সালে সাবেক চেয়ারম্যান লুৎফর রহমানকে হত্যার পর ওল্টু উঠে আসে আলোচনায়। কয়েকবার তাকে জেলে যেতে হয়। সর্বশেষ ১৯৯৯ সালে বেশ কিছু আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে প্রাইভেটকারযোগে যাওয়ার পথে ফরিদপুর কামারখালী ব্রিজের নিকট পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুরের রানা, হানেফও ধরাপড়ে সেই সময়। ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে ছাড়া পড়া মোষ নিয়ে সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে নজরুল ইসলাম সাথে গ্রামবাসীসহ ওল্টু ম-লের বিরোধ দানাবাধে। গত ইউপি নির্বাচনে খাসকররা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যানের মোস্তাফিজুর রহমানের পক্ষে নজরুল ইসলাম কাজ করেন আর ওল্টু ম-ল ছিলো সাবেক চেয়ারম্যান তাসফির আহম্মদ লালের পক্ষে। এই নিয়ে দীর্ঘ দিনের নজরুল আর ওল্টুর মধ্যে বিরোধের জের ধরে নজরুল ইসলাম খুন হন। ওল্টু ম-ল খুন মামলার মূল আসামি হয়। গ্রাম ছাড়ে সে। এরপর ১৮ এপ্রিল রাতে কায়েতপাড়ার জিয়াউর রহমান জিয়া খুন হয়। এ খুন মামলারও মূল আসামি ওল্টু। অবশেষে গত পরশু বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার খাসকররা ইউনিয়নের তালুককররা পারলক্ষ্মীপুর মধ্যবর্তী মাঠে র‌্যাব’র এনকাউন্টারে প্রাণ হারালো ওল্টু। সে ছিলো অবিহাতি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *