রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ষিক ডায়রিতে শেখ হাসিনার নামের বানানে ভুল

স্টাফ রিপোর্টার: রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ষিক ডায়রিতে প্রধানমন্ত্রীর নামের বানানে ভুল ছাপানো হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তর থেকে প্রকাশিত ওই ডায়রিতে প্রধানমন্ত্রীর নামের বানান ভুলের ঘটনায় বিভিন্ন মহলসহ ক্যাম্পাসের ভেতরে-বাইরে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এদিকে ৪ মার্চ আনুষ্ঠানিকভাবে চলতি বছরের ডায়রি বিতরণের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ। এর কয়েকদিন পর ডায়রিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামের বানানে ভুলের ঘটনায় আলোচনা-সমালোচনা শুরু হলে ডায়রি বিতরণ কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় জনসংযোগ বিভাগ।
জানা যায়, জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দফতর থেকে প্রকাশিত ডায়রির ১৫নং পাতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচিতি অংশের শেষ লাইনের আগের লাইনে শেখ হাসিনার নামের বানানে শেখ হাসিনার স্থলে ‘শেখ হসিনা’ লিপিবদ্ধ হয়েছে। ডায়রি বিতরণের কয়েকদিন পর বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রনেতার দৃষ্টিগোচর হলে শুরু হয় সমালোচনা। প্রধানমন্ত্রীর নামের বানান ভুলের কারণে ডায়রি বিতরণ বন্ধ করে তা সংশোধনে পাঠায় জনসংযোগ বিভাগ।
সূত্র মতে, বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সদস্যদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ডায়রি প্রদান করা হলেও এরপর আর কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের কাছে ডায়রি বিতরণ বা বিক্রি করেনি জনসংযোগ বিভাগ। এ সময় শিক্ষক-কর্মকর্তারা ডায়রি সংগ্রহ করতে গেলে সরবরাহ নেই বলে বিদায় করে দেয় ওই দফতরের কর্মচারীরা। এতে বিষয়টি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ওঠে আসে। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জননেত্রী পরিষদের সভাপতি গোলাম রব্বানি বলেন, ‘শুধু প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নামের বানানই ভুল নয় এর আগেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামের বানানেও ভুল করা হয়েছিলো। উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এই ঘটনাগুলো ঘটানো হচ্ছে।’ তিনি এ সব ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানান।
আওয়ামীপন্থি শিক্ষকদের সংগঠন নীল দলের সাধারণ সম্পাদক আপেল মাহমুদ বলেন, ‘উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদানের পর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন (জাতীয় শিশু দিবস), স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস দায়সারাভাবে পালন করা হয়। এছাড়া দেশব্যাপী স্বল্পোন্নত দেশের স্ট্যাটাস হতে উত্তরণে সাফল্য উদযাপন করা হলেও শুধুমাত্র এই বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন কর্মসূচি পালন করা হয়নি। শুধু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামের বানানের ভুলই নয় এর আগে জনসংযোগ দফতর থেকে প্রেরিত প্রেসবিজ্ঞপ্তিতেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামের বানানেরও ভুল ছিলো। বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো একটি জায়গায় এ রকম কর্মকা- সত্যিই লজ্জাজনক।’ এ সকল ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তিনি। জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা বিভাগের প্রশাসক ড. সরিফা সালোয়া ডিনা বলেন, ‘ডায়রি বিতরণ কার্যক্রম বন্ধ রেখে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।’ এ ব্যাপারে রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ’র সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *