রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গা ইউনিটে জেলা প্রশাসকপুলিশসুপারও জেলাপরিষদের প্রধান সংবর্ধিত

0
36

 

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গা ইউনিটের উদ্যোগে জেলা প্রশাসক মো. দেলোয়ার হোসাইন, পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান ও জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ হামীম হাসানকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। সংবর্ধিত প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. দেলোয়ার হোসাইন বলেন, ভালো কাজ করতে হলে কিছু উদ্যোগী মানুষের প্রয়োজন। তা এ প্রতিষ্ঠানে আছে। আপনারা উদ্যোগ নিলে অবশ্যই ডায়াবেটিক হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা হবে। সারাদেশের মধ্যে শীর্ষ পাঁচে রয়েছে চুয়াডাঙ্গার রেডক্রিসেন্ট ইউনিট। এ প্রতিষ্ঠানের সাথে যুবসমাজ রয়েছে। দুর্যোগপূর্ব পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে এ যুবসমাজকে কাজে লাগাতে হবে। আগামীতে এ প্রতিষ্ঠানের জন্য অনেক সহায়তা নিশ্চিত করা হবে। এজন্য আমার পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। শুধু শীত নয় চুয়াডাঙ্গা জেলায় এখন গরমও একটি দুর্যোগ। গরমে ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন রোগবালাই বেড়ে যায়। তা মোকাবেলায় যুব রেডক্রিসেন্টকে কাজে লাগাতে হবে।

গতকাল শনিবার রাত আটটায় রেডক্রিসেন্ট ইউনিট মিলনায়তনে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সেলিম উদ্দিন খানের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতেই সংবর্ধিত অতিথি,বিশেষ অতিথি ও চেয়ারম্যানকে ফুলের শুভেচ্ছা দেন যুবরেডক্রিসেন্ট সদস্য সৌম্যজিতা শ্রুতি, নাসিমা আকতার শোভা, জান্নাতুল নাঈমা,শিউলি খাতুন ও তন্দ্রা বিশ্বাস। এরপর সংবর্ধিত অতিথিবর্গকে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেস্ট এবং রেডক্রিসেন্টের প্রতীক সংবলিত গেঞ্জি,চাবির রিং ও কোর্ট পিন উপহার দেয়া হয়। এসময় সার্বিক সহযোগিতা করেনযুব রেডক্রিসেন্টের উপদেষ্টা মাবুদ সরকার ও যুব প্রধান ওবাইদুল ইসলাম তুহিন।

রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গাইউনিটের উপপরিচালক হায়দার আলী সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সেক্রেটারি ফজলুর রহমান। সংবর্ধিত অতিথি ছাড়াও বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, ইউনিটের সিইসি অ্যাডভোকেট মনিরুজ্জামান মনি, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মোর্তূজা ও নির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট মহা. শামসুজ্জোহা। উপস্থিত ছিলেন- কার্যনির্বাহী সদস্য ডা. ফকির মহাম্মদ, হুমায়ুন কবীর মালিক, ওয়াহেদুজ্জামান বুলা, অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর বেগম, চক্ষু কনসালটেন্ট ডা. এমবি আজম, ডায়াবেটিক চিকিৎসক ডা. আব্দুল হাকিম, ডা. ইউনুছ আলী, ডায়াবেটিক সমিতির কার্যনির্বাহী সদস্য মাহফুজুর রহমান মঞ্জু, ডায়াবেটিক সমিতির প্রশাসনিক কর্মকর্তা ফিরোজ আল মামুনসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবর্ধিত বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান বলেন, এরকম একটি সংগঠনের কাছে সংবর্ধিত হতে পেরে ভালো লাগছে। কৃতজ্ঞতা বোধ করছি। যারা সেবার মানসিকতা নিয়ে এরকম সংগঠনের সাথে জড়িত আছেন। আপনারা এগিয়ে যাবেন। কারণ সবাই এরকম কাজ করেনা,সবাই এরকম কাজ পারেনা। যুবসমাজের ভেতর প্রচুর কাজের আগ্রহ আছে। তাদের উদ্যমকে ইতিবাচক কাজে লাগাতে হবে।

অপর বিশেষ অতিথি জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ হামীম হাসান বলেন, পূর্বের কর্মকর্তারা যেভাবে কাজ করে গেছেন, তার ধারাবাহিকতা রাখা হবে। সহযোগিতার সুযোগকে সর্বোচ্চ কাজে লাগানো হবে। বিশেষ অতিথি পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার বলেন, স্বেচ্ছাসেবা দিয়ে যারা এ প্রতিষ্ঠানকে তিলে তিলে গড়ে তুলেছে, তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি, শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি। আজ যারা সংবর্ধিত হয়েছে, তাদের আন্তরিকতা থাকলে এ প্রতিষ্ঠান কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাবে। হাসপাতালটি আধুনিকায়ন করতে সব ধরনের চেষ্টা করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here