যুক্তরাষ্ট্রের ওপর অবিশ্বাস জন্মেছে ইইউ নেতাদের

মাথাভাঙ্গা মনিটর: যুক্তরাষ্ট্রের একের পর এক গোপন নজরদারির কথ‍া ফাঁস হওয়ায় এবার একটু বেকায়দায় পড়েছে দেশটি। সবশেষ ফ্রান্স ও জার্মানিতে ফোনে আড়িপাতা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও তার ইউরোপীয় মিত্র দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্কে একটু টান টান অবস্থা তৈরি হয়েছে। ফ্রান্স ও জার্মানি এরই মধ্যে নিজ দেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতে ডেকে এ নিয়ে ব্যাখ্যা চেয়েছে। এদিকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় বসতে যাচ্ছে ফ্রান্স ও জার্মানি। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদের সাথে নিজের বৈঠকের বসার বিষয়টি জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মেরকেল। আঙ্গেলা মেরকেল বলেন, একবার যদি অবিশ্বাসের বীজ বপন হয় তাহলে গোয়েন্দামূলক কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা অনেক কঠিন হয়ে পড়বে। তিনি বলেছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বৈঠকের প্রথমদিনের শেষের দিকে জার্মানি ও ফ্রান্স যুক্তরাষ্ট্রের গোপন নজরদারি নিয়ে ‘একটি ফ্রেমওয়ার্ক’ তৈরি করতে চান। যুক্তরাষ্ট্রের নজরদারি নিয়ে সৃষ্ট বিতর্ক ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বৈঠকে ছায়া ফেলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ওয়াশিংটনের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখার নিশ্চয়তা চেয়েছেন মেরকেল। আর এটি শুধু ক্ষমা চাওয়ামূলক বাক্যে নয়-এমনটিও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। তিনি বলেছেন, এতেই ভবিষ্যত পরিষ্কার হবে, কিছু অবশ্যই পরিবর্তিত হবে এবং গুরুত্বপূর্ণভাবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *