যানবাহনে ব্যাপক চাঁদাবাজি!

 

 

মাজেদুল হক মানিক/ মহাসিন আলী: ঈদোত্তর বিনোদনের জন্য মেহেরপুর মুজিবনগর স্মৃতি কমপ্লেক্সে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন জেলা থেকে নারী-পুরুষ ও শিশু-কিশোরদের উপচে পড়া ভিড় জমছে। সংযোগ সড়কগুলোতে মানুষ ও পরিবহনের ভিড়ে দীর্ঘ যানজটেরও সৃষ্টি হচ্ছে। তবে যানবাহনে ব্যাপক চাঁদাবাজি নিয়ে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে দর্শনার্থীদের মাঝে।

বিপুল সংখ্যক দর্শনার্থীর আগমনে চাঁদাবাজিতে মেতেছে পিকনিক স্পট ইজারাদাররা। নিয়ম লঙ্ঘন করে যানবাহন পার্কিঙে জোরপূর্বক অর্থ আদায় করা হচ্ছে। দর্শনার্থীদের অভিযোগ, বাসের জন্য সরকার নির্ধারিত পার্কিং খরচের দ্বিগুন নেয়া হচ্ছে। ইজারা নীতিমালা অমান্য করে মোটরসাইকেল প্রতি আদায় করা হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা। আবার পার্কিংস্পটে প্রবেশ না করেও কমপ্লেক্স এলাকায় প্রবেশ করতে চাইলে যানবাহন থেকে জোরপূর্বক চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। অর্থাৎ থানার সামনে কোনো যানবাহন পৌঁছুলে পার্কিং হোক আর না হোক টাকা দিতে হচ্ছে। ঐতিহাসিক দর্শনার্থী স্থানে এ ধরনের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ হচ্ছে পর্যটকরা। তাই প্রতিকার দাবি করে সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিতের দাবি করলেন তারা।

চাঁদাবাজির বিষয়ে জানতে চাইলে পিকনিকস্পটের ঠিকাদার দাবি করা হুদা মিয়া জানান, ইজারায় তাদের লোকসান হচ্ছে। তাই লোকসান পোষাতে উৎসবের দিনে আয় করা হয়। সংবাদ না লিখতে অনুরোধ করেন তিনি। যানবাহন থেকে জোরপূর্বক অর্থ আদায় বেআইনি উল্লেখ করে তা বন্ধের আশ্বাস দিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অরুন কুমার মণ্ডল।

Leave a comment

Your email address will not be published.