মেহেরপুরে হেরোইন ব্যবসায়ী বাদল ও তার স্ত্রী হেরোইন ও ৫১ হাজার টাকাসহ আটক

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর জেলার আলোচিত হেরোইন সম্রাট হিসেবে পরিচিত সদর উপজেলার দিঘীরপাড়া গ্রামের বাদল হোসেন (৪৫) ও তার স্ত্রী ডলি খাতুনকে (৪২) একশ গ্রাম হেরোইন ও হেরোইন বিক্রির ৫১ হাজার টাকাসহ আটক হয়েছে। গতকাল রোববার রাত ৯টার দিকে নিজ বাড়িতে হেরোইন বিক্রিকালে মেহেরপুর পুলিশ তাদের আটক করে।

মেহেরপুর সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল জলিল জানিয়েছেন, এলাকার চিহ্নিত মাদক সম্রাট ও সম্রাজ্ঞী হিসেবে পরিচিত বাদল হোসেন ও তার স্ত্রী ডলি খাতুন। বাদলের বাড়িতে হেরোইন বেচা-কেনার সময় অভিযান চালালে কয়েকজন পালিয়ে যায়। এ সময় হেরোইন ও হিরোইন বিক্রির ৫১ হাজার টাকাসহ বাদল ও তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের নামে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। মেহেরপুর গাংনী থানায় বাদলের নামে ৫/৬টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছেন আব্দুল জলিল। উদ্ধার হওয়া হেরোইনের আনুমানিক মূল্য ৫ লক্ষাধিক টাকা বলে জানা গেছে।

এদিকে এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানিয়েছেন, জিরো থেকে হিরো হয়েছে বাদল হোসেন। মাদক বিক্রির টাকা দিয়ে সে দিঘীরপাড়া গ্রামে আলিশান বাড়ি তৈরি করেছে। এলাকার যুবকদের ধ্বংসের হাতিয়ার হিসেবে সে তাদের হাতে মাদক তুলে দেয়। সে নিজেকে বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সোর্স পরিচয় দিয়ে ধুমছে মাদক ব্যবসা করে বলে কেউ তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পায় না। অতি সম্প্রতি মাদকসহ তার স্ত্রী ডলি খাতুন আটক হলেও জামিনে মুক্তি পেয়ে পুনরায় সে মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *