মেহেরপুরের টুঙ্গি গোপালপুরে ছয়টি বাড়িতে ডাকাতি : ডাকাতের গুলিতে একজন আহত

মুজিবনগর প্রতিনিধি: মেহেরপুর মুজিবনগর উপজেলার টুঙ্গি গোপালপুর গ্রামে গতরাত ১১টার দিকে ৬টি বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। প্রতিরোধ করতে গিয়ে ডাকাতদলের গুলিতে আমিনুল ইসলাম (৪৫) নামের এক গ্রামবাসী আহত হয়েছেন। তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, ২০/২৫ জনের একদল শসস্ত্র ডাকাত ওই গ্রামের সামসুদ্দীনের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক পটাই, ফজলু মিয়ার ছেলে মজিদুল ইসলাম, আহাদ আলীর ছেলে আজিত মিয়া, ছমির উদ্দীনের ছেলে মোকলেছ হোসেন, কাওছার আলী ও গয়েছ উদ্দীনের বাড়িতে হানা দেয়। অস্ত্রের মুখে বাড়ির লোকজনকে জিম্মি করে নগদ টাকা সোনারগয়নাসহ ৩ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটে নেয়। গ্রামবাসীর প্রতিরোধকালে গুলি ছুড়ে পালিয়ে যায় ডাকাত দলের সদস্যরা। এতে গুলিবিদ্ধ হন আমিনুল ইসলাম। তিনি ওই গ্রামের মৃত আব্দুর রহমান মাস্টারের ছেলে।

স্থানীয়সূত্রে আরো জানা গেছে, ডাকাতদলের সদস্যরা কয়েকটি গ্র“পে একই সময়ে বাড়িগুলোতে প্রবেশ করে। এতে স্বল্প সময়ের মধ্যেই তারা ডাকাতি সম্পন্ন করে। মজিদুল ইসলামের পিতার চিকিৎসার জন্য বাড়িতে নগদ এক লাখ টাকা ছিলো। সেগুলোও লুটে নেয় ডাকাতরা। এছাড়াও মোবাইলফোন, চার্জার লাইটসহ বিভিন্ন মালামাল নিয়ে যায়। খবর পেয়ে গ্রামের মানুষ কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তোলে। আমিনুল ইসলাম তার বাড়িতে দোতলার ছাদে উঠে চিৎকার করছিলেন। এ সময় ডাকাতদলের সদস্যরা তাকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুলির ছররা লাগে। স্থানীয় লোকজন তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছান মুজিবনগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মনির হোসেনসহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যরা। তিনি জানান, অভিনব কায়দায় হানা দিয়েছে ডাকাতরা। তবে তারা সামান্য কিছু টাকা ও মালামাল নিয়ে গেছে। এদের ধরতে অভিযান চলছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *