মুম্বাইয়ে নারী ফটোসাংবাদিক গণধর্ষণের শিকার

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতের চলচ্চিত্রের রাজধানী মুম্বাইয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী ফটোসাংবাদিক। গত বৃহস্পতিবার রাতে দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কমপক্ষে ২৫ জনকে আটক করা হয়েছে। জানা গেছে, মুম্বাইয়ের নিম্নাঞ্চলীয় পারেল এলাকার শক্তি মিলসের কাছে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে ২৩ বছর বয়সী ওই নারী ধর্ষণের শিকার  হয়। তার সাথে একজন পুরুষ সঙ্গী ছিলো। পুলিশ জানিয়েছে, ফটোসাংবাদিক নারীকে ধর্ষণের আগে তার পুরুষ সঙ্গীর ‍হাত-পা বেঁধে বেদম পেটায় ধর্ষকরা। একটি ইংরেজি সাময়িকীর ফটোসাংবাদিক ওই নারী। পুরোনো ভবন নিয়ে ফিচার প্রতিবেদনের ছবি সংগ্রহ করতে তিনি মুম্বাইয়ের পারেল এলাকায় গিয়েছিলেন। পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিক তথ্যে জানা গেছে যে ওই তরুণী আভ্যন্তরীণ ও বাহ্যিক উভয়ভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন। স্থানীয় একটি হাসপাতালে তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তার অবস্থা সঙ্কটজনক হলেও স্থিতিশীল। ধর্ষণের শিকার ফটোসাংবাদিক জানান, জীর্ণ শক্তি মিলস চত্বরের একটি ভবনে দুজন তাকে টেনে নিয়ে যায় এবং তারপর আরও তিনজনকে ভবনে ডেকে আনে। তার ওপর নির্যাতন চালায়, ধর্ষণ করে এবং তার বন্ধুকে মারপিট করে। তিনি আরও জানিয়েছেন, দু ধর্ষণকারী একজন আরেকজনকে রুপেশ ও সাজিদ বলে ডেকেছিলো। এ ঘটনায় ২০ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ বলেছে, যাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে তারা ওই এলাকায় মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী আর আর পাতিল হাসপাতালে ওই নারী সাংবাদিককে দেখতে যান। তিনি দায়ীদের আইনের আওতায় আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর দিল্লির গণধর্ষণের ঘটনার সাথে এ ঘটনাকে তুলনা করেছে ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো। দিল্লির ওই ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত ছয়জনের একজনের রায় আগামী ৩১ আগস্ট হওয়ার কথা রয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *