মুজিবনগর দিবস পালনে মেহেরপুরে প্রেসব্রিফিং

মেহেরপুর অফিস: ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপনে মেহেরপুর মুজিবনগর আম্রকানন বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে। আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানান অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও মেহেরপুর জেলা প্রশাসন। গতকাল শনিবার দুপুরে আয়োজন সম্পর্কে এক প্রেসবিফ্রিং করেন জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ।

১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল তৎকালিন বৈদ্যনাথতলা (মুজিবনগর) আম্রকাননে বাংলাদেশের প্রথম সরকার শপথ গ্রহণ করেন। সেই দিনটি জাতির কাছে তুলে ধরতেই কয়েক বছর ধরে আম্রকানন ঘিরে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এবার ১৭ এপ্রিল সূর্যোদয়ের সাথে সাথে মুজিবনগর স্মৃতি সৌধে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসের কর্মসুচী শুরু হবে। সকাল ৯টায় স্মৃতি সৌধে পুষ্পস্তুবক অর্পণের পরই শুরু হবে কুঁচকাওয়াজ ও গার্ড অব অনার। ১৯৭১ সালে প্রথম সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্যদের গার্ড অব অনার প্রদানকারী আনসার সদস্যরা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথিকে গার্ড অব অনার প্রদান করবেন। অনুষ্ঠানস্থলে সকাল ১০টায় আনছার-ভিডিপি শিল্পিরা ‘হে তারুণ্য তুমি রুখে দাঁড়াও’ শিরোনামে গীতিমাল্য অনুষ্ঠান উপস্থাপন করবে। সাড়ে ১০টায় শেখ হাসিনা মঞ্চে মুজিবনগর দিবসের আলোচনাসভা শুরু হবে। প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবাইদুল কাদের। সভাপতিত্ব করেন মুজিবনগর দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। বক্তব্য রাখেন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, এমপি, গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। এদিকে বিকেল ৫টায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে দেশ  বরেণ্য শিল্পি মমতাজ ও বারী সিদ্দিকীসহ বেশ কয়েকজন শিল্পি সঙ্গীত পরিবেশন করবেন। এছাড়াও কমপ্লেক্স এলাকাজুড়ে আলোকাসজ্জা করা হয়েছে। থাকছে রঙিন আলোর ঝলকানি। অনুষ্ঠান সফল করতে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন জেলা প্রশাসক। এবারের অনুষ্ঠান ঘিরে সর্বোচ্চ নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক বলেন, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার পরামর্শে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

মেহেরপুর পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান বলেন, যেকোন প্রকার বিশৃঙ্খলা ও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে সতর্ক রয়েছে পুলিশ। জেলা ছাড়াও অন্যান্য জেলা থেকে প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ সদস্য আনা হয়েছে। জেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থান ও সড়ক এবং অনুষ্ঠান স্থলের কয়েক কিলোমিটারের মধ্যে নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে। ইতোমধ্যে কমপ্লেক্সে প্রবেশে কড়াকড়ি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। কমপ্লেক্সে এলাকা সিসিটিভি আওতায় নেয়া হয়েছে। পোশাকি পুলিশ সদস্যদের পরিবর্তে শাদা পোশাকেও দায়িত্ব পালন করবে পুলিশ। ভিভিআইপি নিরাপত্তাও নেয়া হয়েছে। কমপ্লেক্সে সন্দেহজনক ব্যাগ-ব্যাগেজ ও পানির বোতল নিষিদ্ধ। এছাড়াও দুই দিন আগে থেকে এলাকায় টহল জোরদার করা হয়েছে। এদিকে কমপ্লেক্স এলাকা মনোরম পরিবেশে সজ্জিত করা হয়েছে। ব্যানারে-ফেস্টুনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমান, প্রথম সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সদস্য (জাতীয় চার নেতা) ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি স্থান পেয়েছে। মেহেরপুর-মুজিবনগর সড়করে দু’পাশ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসনের প্রেস বিফ্রিং অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচাল খায়রুল হাসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রশিদুল মান্নাফ কবীর ও এনডিসি রামানন্দ পালনসহ জেলায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়াকর্মীবৃন্দ।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *