মারা গেলেন সড়ক দুর্ঘটনায় আহত আলমডাঙ্গা কালিদাসপুরের যুবক মহির

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গা উপজেলার কালিদাসপুর গ্রামের মহির উদ্দীন নামের টগবগে এক যুবক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গত বুধবার বেলা ১১টার দিকে নসিমনযোগে আলমডাঙ্গায় আসার সময় আলমডাঙ্গা-কুষ্টিয়া সড়কের জগন্নাথপুর এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হলে তাকে প্রথমে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে তার মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার কালিদাসপুর গ্রামের উত্তরপাড়ার আক্কাস আলীর ছোট ছেলে মহির উদ্দীন (২৪) আলমডাঙ্গা শহরের আলোর ভুবন নামক ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। গত বুধবার বেলা ১১টার দিকে তিনি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কিছু মালামালসহ তার শ্বশুরবাড়ি কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার বামনগাড়ি গ্রাম থেকে নসিমনযোগে আলমডাঙ্গায় ফিরছিলেন। পথিমধ্যে আলমডাঙ্গা-কুষ্টিয়া সড়কের জগন্নাথপুর এলাকায় পৌঁছুলে পেছন দিক থেকে ছুটে আসা একটি মিনি ট্রাক নসিমনকে সজোরে ধাক্কা দিলে তিনি ছিটকে পড়ে রক্তাক্ত জখম হন। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আলমডাঙ্গার একতা ক্লিনিকে ও পরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতির কারণে রাতেই তাকে রেফার করা হলে নেয়া হয় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে তার মৃত্যু হয়। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে লাশ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। জানাজা শেষে বেলা ১১টার দিকে গ্রামের গোরস্তানে তার লাশ দাফন করা হয়।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মহির উদ্দীন ৪ ভাইয়ের মধ্যে সবার ছোট। মহির উদ্দীন বিবাহিত। একমাত্র ছেলে লিপুর বয়স এখন ৩ বছর। ছোট্ট শিশুপুত্রকে নিয়ে স্ত্রী লতা খাতুন (১৮) এখন অগাধ সমুদ্রে পড়েছেন। নিহত মহির উদ্দীনের বড় ভাইও কয়েক বছর পূর্বে বিষ পানে আত্মহত্যা করেন। পরপর দু ছেলেকে হারিয়ে মহির উদ্দীনের পিতা-মাতা শোকে পাগলপ্রায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *