মহেশপুরের শ্রীরামপুরে সাইফুলকে মালয়েশিয়ায় পাচার : থানায় মামলা

মহেশপুর প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার হুদো শ্রীরামপুর গ্রামের সাইফুল নামে এক যুবক প্রতারকের খপ্পরে পড়ে মালয়েশিয়ায় পাচারের শিকার হয়েছে। এখন সে মালয়েশিয়ায় মানবেতর জীবনযাপন করছে। এ বিষয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে মহেশপুর থানায় মামলা দায়ের করেছে।
থানা ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ঝিনাইদহ মহেশপুর উপজেলার হুদো শ্রীরামপুর গ্রামের নুরুল আমিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম। তাকে একই উপজেলার মানবপাচারকারী সিন্ডিকেটের সদস্য বেড়েরমাঠ গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে রেজাউল ইসলাম অবৈধ পথে মালয়েশিয়া পাচার করে দেয়। ভিকটিমের মা রিজিয়া পারভীন জানায়, ২০১৬ সালের ২৯ ডিসেম্বর বিকেলে রেজাউল স্ট্যাম্পের মাধ্যমে আমার বাড়ি থেকে ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা গ্রহণ করে আমার ছেলেকে নিয়ে যেয়ে অবৈধ পথে মালয়েশিয়ায় পাচার করে দিয়েছে। আমাদের দারিদ্রতার সুযোগ নিয়ে আমার ছেলেকে বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে ভালো বেতনের চাকরি দেয়ার লোভ দেখিয়ে বৈধভাবে মালয়েশিয়া নিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সে বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। কিন্তু মালয়েশিয়া যাওয়ার পর ২ মাস আমার ছেলের কোনো সন্ধান ছিলো না। আমার ছেলেকে মালয়েশিয়ায় আটকে রেখে মানবপাচারকারী রেজাউল আমাকে নানা ধরণের ভয়ভীতি দেখিয়ে আমার কাছ থেকে পর্যায়ক্রমে আরও ১ লাখ টাকা নিয়েছে। আমরা পরে জানতে পারলাম তাকে অবৈধ পথে মালয়েশিয়ায় পাচার করে দেয়া হয়েছে। সে এখন মালয়েশিয়ায় মানবেতর জীবনযাপন করছে। এ ব্যাপারে ভিকটিমের মা রিজিয়া পারভীন বাদী হয়ে গতকাল সোমবার মহেশপুর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন। একই সাথে তিনি মানবাধিকার সংগঠনগুলোর সহযোগিতা কামনা করেছেন। মহেশপুর থানার ওসি লস্কর জায়াদুল হক জানান, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। অপরদিকে দালাল চক্রের হোতা রেজাউলের মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *