মন্ত্রী-সচিব সৎ হলে দুর্নীতি ৫০ ভাগ কমে যাবে

 

স্টাফ রিপোর্টার: সড়ক, পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যে কোনো মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিব দুর্নীতিমুক্ত হলে দুর্নীতি ৫০ ভাগ কমে যাবে। শুক্রবার রাজধানীর বিয়াম ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে আয়োজিত সড়ক, পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের কর্মকর্তাদের সরকারি কর্মসম্পাদন পদ্ধতি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। সড়ক, পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় এবং বিয়াম ফাউন্ডেশন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আগের ঈদের সঙ্কট এ ঈদে দেখতে চাই না। প্রতিবার ঈদ এলে কাজের প্রস্তুতি নেয়া হবে- এটা ঠিক নয়। ঈদের জন্য আর ছুটি বাতিল করতে চাই না। যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সব সময়ের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। তিনি বলেন, মহাসড়কগুলোতে এখন আর তেমন সমস্যা নেই। এখন আর বর্ষা ও ঈদে মহাসড়কে কোনো সমস্যা হবে না। এখন জেলা শহরের সড়কগুলোর দিকে নজর দেয়া হবে। জেলার রাস্তাগুলো নাজুক অবস্থায় রয়েছে। এ চেহারা ধীরে ধীরে বদলাতে হবে। সেতুমন্ত্রী বলেন, এ মন্ত্রণালয়ে অনেক সমস্যা ছিল। চেইন অব কমান্ড ছিল না। দুর্নীতি-অনিয়ম এখানে স্থায়ীভাবে বাসা বেঁধেছিল। কিন্তু এখন এ মন্ত্রণালয়ে প্রমোশনের জন্য টাকা দিতে হয় না। বদলি ও ভালো পোস্টিংয়ের জন্যও নয়। এ মন্ত্রণালয় এখন শতভাগ দুর্নীতিমুক্ত হয়েছে এমন দাবিও করা না গেলেও আগের চেয়ে ভালো হয়েছে বলা যায়। বিআরটিসি ও বিআরটির প্রসঙ্গ টেনে মন্ত্রী বলেন, বিআরটিসিতে দুর্নীতি বাসা বেঁধে আছে। দুর্নীতি ও অনিয়মের লাগাম টেনে ধরতে হলে ডিপো ম্যানেজারদের নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, বিআরটিএতে আগের চেয়ে দুর্নীতি-অনিয়ম কিছুটা কমলেও এখনও দালালরা অফিসারের চেয়ারে বসে টাকা ভাগাভাগি করে। ঢাকা সিটির প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, এ সরকারের সোনালী অর্জনের সঙ্গে ঢাকা সিটির চেহারার কোনো মিল নেই। সর্বত্র নোংরা, আবর্জনা ও দুর্গন্ধে ভরা। যত্রতত্র বিলবোর্ড ও পোস্টার ঝুলছে। এ সময় ইকোনমিস্টের জরিপের বরাত দিয়ে মন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর ১৪০টি সিটির মধ্যে ঢাকা মহানগর সবচেয়ে নিকৃষ্টতম। ওই তালিকায় ১৩৯তম এ মহানগরের অবস্থান।

বিয়াম ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক মো. ফজলুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সড়ক, পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সড়ক, পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এমএএন সিদ্দিক ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) ম. নজরুল ইসলাম। সিনিয়র সহকারী সচিব ও কোর্সের সহকারী পরিচালক নার্গিস আকতার ডলি সঞ্চালনায় এ সময় স্বাগত বক্তব্য দেন যুগ্ম সচিব ও বিয়াম ফাউন্ডেশনের পরিচালক ড. কাজী আনোয়ারুল হক। দুই দিনের এ প্রশিক্ষণ কোর্সে সড়ক, পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের ৩০ কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *