ভাইয়ের পরকীয়া : বোনকে গণধর্ষণের নির্দেশ!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ভারতের পর এবার পাকিস্তানের একটি গ্রামে ভাইয়ের পরকীয়ার শাস্তি হিসেবে তার ৪০ বছর বয়সী বোনকে গণধর্ষণ করার নির্দেশ দিয়েছে পঞ্চায়েত। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার পাকিস্তানের একটি দৈনিকে এ কথা জানানো হয়। খবরে বলা হয়, ঘটনার সূত্রপাত হয় গত ২৪ জানুয়ারি। ওই দিন গ্রামের এক ব্যক্তি পঞ্চায়েতে অভিযোগ করে তার স্ত্রীর সাথে আজমল নামের এক ব্যক্তির পরকীয়া চলছে। ওই ব্যক্তি এর বিচার দাবি করেন। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে গ্রামের পঞ্চায়েতে বিচার বসানো হয়। বিচারে ১০ মিনিটের শুনানি শেষে শাস্তি হিসেবে পঞ্চায়েত ঘোষণা করে, বাদীপক্ষের লোকেরা আজমলের তালাকপ্রাপ্ত বোনকে গণধর্ষণের করবে। পরে গ্রামবাসী ক্ষোভে ফেটে পড়ে। পরে পঞ্চায়েতের বিচারে অংশ নেয়া সন্দেহভাজন নয়জনের মধ্যে ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে কি-না সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। কেননা, ওই নারী গণধর্ষণের কথা অস্বীকার করেছেন। তবে স্বজনদের নিরাপত্তার কথা ভেবে ওই নারী আসল ঘটনা আড়াল করে থাকতে পারেন বলে পুলিশের ধারণা। অন্যদিকে বাদীপক্ষের একজনের দাবি, ওই নারীকে বিবস্ত্র করে মারধর করা হয়েছে। তবে কোনো ধর্ষণের ঘটনা ঘটেনি। কিছুদিন আগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলায় অন্য সম্প্রদায়ের যুবককে ভালোবাসায় এক আদিবাসী তরুণীকে গণধর্ষণের নির্দেশ দেন গ্রামের মোড়লেরা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৩ জন পুরুষ ওই তরুণীকে গণধর্ষণ করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *