বেগমপুরের উজলপুরে বৃদ্ধা দম্পতিকে মারপিট

স্টাফ রিপোর্টার: ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে চুয়াডাঙ্গার উজলপুর গ্রামে বসতভিটা কেড়ে না নিতে পেরে স্বামী-স্ত্রীকে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে ইমান মোল্লা গংয়ের বিরুদ্ধে। একমাত্র মাথাগোজার ঠাইটুকু রক্ষা করতে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে বৃদ্ধ লোকমান হোসেন। পুলিশ ওই জমির ওপর যেতে নিষেধ করলেও তা মানেনি ইমান আলী গঙ।
অভিযোগে জানাগেছে, দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের উজলপুর গ্রামের মাঠপাড়ার আলী হোসেনের ছেলে লোকমান হোসেন (৯০) এগারো শতক জমি কিনে বসতভিটা গড়ে বসবাস করে আসছেন। একই মালিকের নিকট থেকে ইমান মোল্লা কিছু জমি খরিদ করেন। অভিযোগ উঠেছে, গতকাল বুধবার ইমান মোল্লার ছেলে কামাল হোসেন, আমরু, আলমগীর হোসেন, আইনাল হোসেনের ছেলে রহিম আলী, জয়নাল হোসেনের ছেলে ছালাম ও ওসমানের ছেলে আফাজ উদ্দিন লাঠি সোটা নিয়ে বসতভিটা দখল করতে যায়। এসময় বৃদ্ধা লোকমান, স্ত্রী কামরুন নাহার, ছেলের বৌ তাছলিমা বেগম বসতভিটা রক্ষা করতে গেলে তাদেরকে মারপিট করে আহত করা হয়। বিষয়টি নিয়ে উভয়পক্ষ বেগমপুর ক্যাম্প পুলিশের নিকট গেলে পুলিশ নালিশি জমির ওপর যেতে নিষেধ করলেও তা মানেনি ইমান আলী গং। এদিকে একমাত্র মাথাগোজার ঠাইটুকু রক্ষা করতে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে বৃদ্ধ লোকমান হোসেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইমান আলীর পক্ষ থেকে বলা হয় ওই জমি আমাদের আগে কেনা, তাই জমির দখল নিতে গিয়েছি।

Leave a comment

Your email address will not be published.