বিষেই মরেছিলেন আরাফাত : প্রতিবেদন

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ফিলিস্তিনের মুক্তিসংগ্রামের নেতা ইয়াসির আরাফাতের দেহাবশেষে বিষাক্ত তেজস্ক্রিয় পদার্থ পলোনিয়ামের অস্তিত্ব শনাক্ত করেছেন সুইজারল্যান্ডের বিজ্ঞানীরা। সুইস বিজ্ঞানীরা আরাফাতের দেহাবশেষের নমুনায় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে স্বাভাবিক মাত্রার চেয়েও অন্তত ১৮ গুণ বেশি পলোনিয়ামের উপস্থিতি খুঁজে পেয়েছেন। বিজ্ঞানীরা জানান, তারা এ ব্যাপারে ৮৩ শতাংশ নিশ্চিত যে সাবেক এ নেতাকে পলোনিয়াম বিষ প্রয়োগ করা হয়েছিলো। বিজ্ঞানীরা মোটামুটিভাবে নিশ্চিত হয়েছেন যে পলোনিয়ামই তার মৃত্যুর কারণ। সুইজারল্যান্ডের লোজান্নায় অবস্থিত সেন্টার অব লিগ্যাল মেডিসিন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকাশিত ১০৮ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে বিজ্ঞানীরা বলেন, আরাফাতের পাঁজর ও মেরুদণ্ডের নিচের অংশে এবং মাটিতে মিশে যাওয়া মাংশপেশিতে অস্বাভাবিক মাত্রার পলোনিয়াম পাওয়া গেছে। গত বছর নভেম্বরে ফ্রান্স, রাশিয়া ও সুইজারল্যান্ডের বিজ্ঞানীদের একটি দল ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরবর্তী রামাল্লায় আরাফাতের সমাধি থেকে তার মৃতদেহ তুলে দেহাবশেষের নমুনা সংগ্রহ করেন। যুক্তরাজ্যের বিখ্যাত ফরেনসিক বিজ্ঞানী ও সাবেক গোয়েন্দা ডেভ বার্সলে বলেন, সুইস বিজ্ঞানীদের গবেষণার ফলাফলে প্রমাণিত হচ্ছে যে আরাফাতকে হত্যা করা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *