বিশ্ব টুকিটাকি : ভারতীয় কনস্যুলেটে হামলা : পাঁচ হামলাকারীসহ নিহত ৮

ভারতীয় কনস্যুলেটে হামলা : পাঁচ হামলাকারীসহ নিহত ৮

মাথাভাঙ্গা মনিটর: আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় শহর জালালাবাদে ভারতীয় কনস্যুলেটে হামলাকারী জঙ্গিদের সবাইকে হত্যা করা হয়েছে। আইএএনএস এর প্রতিবেদনে, গতকাল বুধবারের ওই হামলায় পাঁচ হামলাকারী ছাড়াও আরও অন্তত দুইজন বেসামরিক নাগরিক ও একজন পুলিশ নিহত হওয়ার কথা বলা হয়েছে। অন্যদিকে, রয়টার্স চার হামলাকারী ও দুই বেসামরিক নাগরিকের নিহত হওয়ার খবর জানিয়েছে। এ হামলায় আরও অন্তত ১৯ জন বেসামরিক ব্যক্তি আহত হয়েছে। হাসপাতালে তাদের চিকিৎসা চলছে। রাজধানী কাবুল ও পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশে কুনারে আত্মঘাতী হামলা চালিয়ে বহু মানুষকে হত্যা ও আহত করার কয়েকদিনের মধ্যেই এ হামলা হল। এতে তালেবানের সাথে থমকে পড়া শান্তি আলোচনা ফের শুরুর উদ্যোগ অনিশ্চয়তায় পড়লো। ঘটনার বর্ণনায় স্থানীয় পুলিশ প্রধান ফজেল আহমদ শিরজাদ বলেন, নানগরহার প্রদেশের জালালাবাদে ভারতীয় কনস্যুলেটের প্রধান ফটকের সামনে গাড়ি ভর্তি বিস্ফোরকসহ একজন আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী নিজেকে উড়িয়ে দেয়।

বিধ্বস্ত ফটক দিয়ে আরও চার হামলাকারী কনস্যুলেট প্রাঙ্গণে প্রবেশের চেষ্টা করে। নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে আধঘণ্টার যুদ্ধে ওই চার হামলাকারীও নিহত হয়। নানগারহার প্রদেশের গভর্নরের মুখপাত্র আতাহুল্লাহ খুজিয়ানি রয়টার্সকে জানান, কন্স্যুলেট প্রাঙ্গণে ঢোকার আগেই চার হামলাকারীকে হত্যা করা হয়।

তিনি বলেন, তাদের লক্ষ্যে ছিলো ভারতীয় কনস্যুলেট, কিন্তু লক্ষ্যে পৌঁছানোর আগেই আমাদের বাহিনী তাদের সবাইকে গুলি করে হত্যা করে। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেনি।

জানুয়ারিতে একই এলাকায় পাকিস্তানি কনস্যুলেটেও আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছিল জঙ্গিরা। ইসলামিক স্টেট (আইএস) ওই হামলার দায় স্বীকার করেছিল। রাজধানী জালালাবাদসহ নানগারহার প্রদেশে আইএসের উপস্থিতি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

 

ভূমিকম্পের পর ইন্দোনেশিয়ায় সুনামি সতর্কতা জারি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ৭ দশমিক ৯ মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছে ইন্দোনেশিয়ায়। শক্তিশালী এই ভূমিকম্পের পর দেশটিতে জারি করা হয়েছে সুনামি সতর্কতা। ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল বুধবারের ওই ভূমিকম্পের উৎপত্তি স্থল ছিলো সুমাত্রা প্রদেশের রাজধানী পাডাং এর ৮০৮ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে মাটির ১০ কিলোমিটার গভীরে। তাৎক্ষণিকভাবে ভূমিকম্পে হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। ভূমিকম্পের পর পশ্চিম সুমাত্রা, উত্তর সুমাত্রা ও আচেহ প্রদেশে সুনামির সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ২০০৪ সালে ভারত মহাসাগরে ভূমিকম্প পরবর্তী সুনামিকে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল ইন্দোনেশিয়া।

নিজের প্রায় ৩ কোটি ডলার বাঁটোয়ারা করে গিয়েছিলেন লাদেন!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদার প্রধান ওসামা বিন লাদেন তার ২ কোটি ২৯ লাখ ডলারের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি মৃত্যুর অনেক আগেই ভাগ-বাঁটোয়ারা করে গিয়েছিলেন। ওই সম্পত্তির একটি বড় অংশ বিশ্বজুড়ে জঙ্গিবাদী তৎপরতা চালিয়ে যেতে আল-কায়েদার জন্য বরাদ্দ করে অছিয়তও করে গিয়েছিলেন তিনি। খবর রয়টার্সের। ২০১১ সালে পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদে মার্কিন সেনা কমান্ডোরা বিন লাদেনকে হত্যার পর সেখান থেকে তার হাতে লেখা কিছু চিঠি ও অন্যান্য নথি উদ্ধার করেন। ওই চিঠি ও নথিতেই সম্পত্তি বাঁটোয়ারার বিষয় উল্লেখ ছিলো বলে মার্কিন গোয়েন্দা সদস্যরা জানিয়েছেন। রয়টার্স জানিয়েছে, চিঠি ও নথিগুলোর অনুলিপি তাদের হাতে এসেছে।
খবরে বলা হয়েছে, নব্বইয়ের দশকে লাদেন একটি নোটে লিখেছিলেন, তাঁর ২ কোটি ৯০ লাখ ডলারের ১ শতাংশ পাবেন সুদানের আল-কায়েদা নেতা মাহফুজ উলদ্ আল ওয়ালিদ। সুদানের আরেক জঙ্গি নেতা আবু ইব্রাহিম আল ইরাকি পাবেন আরও ১ শতাংশ সম্পদ। কিছু সম্পদ লাদেন তার মা, এক ছেলে, এক মেয়ে, এক চাচা ও খালাদের মধ্যে ভাগ করে দিতে বলেন। বাকি সব সম্পদ ‘জিহাদের কাজে’ ব্যয় করার জন্য পরিবারের সদস্যদের নির্দেশনা দেন। ২০০৮ সালের এক চিঠিতে লাদেন নিজের বাবাকে তাঁর স্ত্রী ও সন্তানদের দেখভাল করার জন্য অনুরোধ জানান।

আল্লাহ আমাকে শিশুটির মাথাকাটার আদেশ দিয়েছেন

মাথাভাঙ্গা মনিটর: নিজের তত্ত্বাবধানে থাকা এক শিশুকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার এক উজবেক নারী ‘আল্লাহ তাকে শিশুটির মাথা কাটার আদেশ দিয়েছেন’ বলে দাবি করেছেন। গতকাল বুধবার মস্কোর একটি আদালত প্রাঙ্গণে তিনি বলেন, আল্লার আদেশেই তিনি এই কাজ করেছেন।

তিন সন্তানের জননী ৩৮ বছর বয়সী গুলচেখরা বোবোকুলোভা কোর্টরুমে প্রবেশের সময় সাংবাদিকদের কাছে ওই মন্তব্যটি করেন। নিজের অপরাধ স্বীকার করেন কি-না, এমন প্রশ্নে ‘হ্যাঁ’ সূচক জবাব দিয়েছেন বোবোকুলোভা।

এর আগে সোমবার আয়ার কাজ করা ওই নারীকে একটি শিশুর খণ্ডিত মস্তকসহ মস্কোর একটি মেট্রো রেল স্টেশনের সামনে থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই সময় শিশুর খণ্ডিত মাথাটি সবাইকে দেখাচ্ছিলো সে, তার এই কাজে ঘটনাস্থলে ইসলামপন্থি সন্ত্রাসী হামলার আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

শিশু হত্যার সাথে বোবোকুলোভা ছাড়া এখনও পর্যন্ত আর কারও জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে আদালতকে জানিয়েছেন এক তদন্তকারী।

বোবোকুলোভা মানসিক অসুস্থতায় ভুগছেন বলে জানিয়েছেন রুশ কর্মকর্তারা।

নিহত মেয়ে শিশুটির বয়স দুই বা তিন বছর বলে জানিয়েছে অনলাইন ভিত্তিক স্থানীয় ট্যাবলয়েড ‘লাইফ নিউজ’।

মস্কো ইনভেসটিগেটিভ কমিটির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, মস্কোর উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের একটি আগুনে পুড়ে যাওয়া ফ্ল্যাট থেকে একটি শিশুর মস্তকবিহীন পোড়া দেহ উদ্ধারের পর তদন্ত শুরু হয়। প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, শিশুটির আয়া মধ্য এশিয়ার কোনো দেশের নাগরিক। ওই দিন তিনি নিহত শিশুটির বাবা-মা ও তাদের বড় সন্তানের বাসা থেকে বের হওয়ার অপেক্ষায় ছিলেন। তারা বের হয়ে গেলে ওই নারী শিশুটিকে হত্যা করে খণ্ডিত মাথাটি ব্যাগে ভরে ফ্ল্যাটে আগুন ধরিয়ে দিয়ে চলে যায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *