বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষ

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: শরীরে অস্বাভাকিক উচ্চতা হওয়ায় নিজের জীবনে কেউ সঙ্গী হয়ে আসবে কি-না এ নিয়ে ভীষণ দুঃশ্চিন্তায় ছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা পুরুষ সুলতান কোসেন। শেষ পর্যন্ত মনের মানুষ খুঁজে পেয়েছেন ৮ ফুট ৩ ইঞ্চি উচ্চতার এ তুর্কি তরুণ। তার সাথে বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন ৫ ফুট ৮ ইঞ্চি উচ্চতার তুর্কি তরুণী মার্ব দীবো। ৩০ বছর বয়সী সুলতান গত রোববার তুরস্কের বাসভবনে নিজের চেয়ে উচ্চতায় ২ ফুট ৭ ইঞ্চি ছোট ২০ বছর বয়সী দীবোর সাথে আংটি বদল করেন। শিগগিরই এদের বিয়ে সম্পন্ন হবে। জীবনসঙ্গী পেয়ে পেশায় কৃষক সুলতান উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, আমি অনেক চিন্তায় ছিলাম, কাউকে সঙ্ঘী হিসেবে পাবো কি-না। তবে শেষ পর্যন্ত দীবো আমার জীবনে এলো। আমি শিহরিত। নিজের জীবনে সুলতানের মতো একজন ব্যক্তিত্বসম্পন্ন মানুষ পাওয়ায় গর্ববোধের কথা জানিয়েছেন দীবো।

উল্লেখ্য, ১৯৮২ সালের ১০ ডিসেম্বর তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর মারদিনে জন্মগ্রহণ করেন সুলতান। জন্মের পর থেকেই হরমোনজনিত কারণে অস্বাভাবিকভাবে শারীরিক বৃদ্ধি হতে থাকে। তবে শেষ পর্যন্ত ২০১১ সালে শারীরিক বৃদ্ধি থামে। গিনেস ওয়াল্ড রেকর্ড বুকে ঠাঁই পায় সুলতান। সুলতানের হাতের দৈর্ঘ ২৭ দশমিক ৫ সেন্টিমিটর ও পায়ের দৈর্ঘ ৩৬ দশমিক ৫ সেন্টিমিটার।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *